দ্রুত কাজ সারার নির্দেশ, পুজোর আগেই লক্ষী ভান্ডারে’র টাকা পাবেন মহিলারা

রাজ্যে দ্রুত হাতে কাজ শুরু হয়েছে লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের জন্য। শোনা যাচ্ছে পুজারা আগেই লক্ষীর ভান্ডার এ টাকা পাবেন রাজ্যের সমস্ত মহিলারা । নবান্ন সূত্রে খবর যে সমস্ত আবেদন জমা পড়েছে তা দ্রুত খতিয়ে দেখা হচ্ছে । যাতে যত শীঘ্র পারা যায় কাজ সম্পন্ন করা হবে । এই দিন বুধবার অর্থাৎ ১৬ ই সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় পর্যায়ের দুয়ারের সরকার শিবিরের কাজ শেষ হয়েছে । যে সমস্ত আবেদন করেছে তার মধ্যে বিভিন্ন প্রকল্পে সরকারি পরিসেবা নিয়েছেন রাজ্যের প্রায় ৪ লক্ষ কাছাকাছি বাসিন্দা। এত আবেদনের মধ্যে সবথেকে বেশি আবেদন জমা পড়েছে ‘লক্ষীর ভান্ডার ‘ প্রকল্পের জন্য।

এছাড়া ‘স্বাস্থ্যসাথী’এবং ‘খাদ্যসাথী ‘প্রকল্পের জন্য আবেদন পত্র এবং জাতিগত শংসাপত্র নেওয়ার জন্য আবেদন জমা পড়েছে। দুয়ারে সরকার প্রকল্প চালু হয়েছিল ২০২১ এর ১৬ ই আগস্ট থেকে । সম্প্রতি এই প্রকল্পটির শেষ হয়েছে বুধবার। এই প্রকল্পের উদ্দেশ্যে রাজ্যে মোট শিবির করার কথা ছিল ৯২ হাজার ৪৮ টি। বর্তমানে যার মধ্যে ৯১ হাজার ৯০৩ টি শিবির করা হয়েছে। বর্তমানে রাজ্যের লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের জন্য আবেদন জমা পড়েছে ১ কোটি ৭৯ লক্ষ ২৬হাজার ৩৬৮ টি। তবে শিবিরে এসেছেন ৩ কোটি ৫৮ লক্ষ ৭৪ হাজার ৭৯১ জন। এছাড়া স্বাস্থ্যসাথীর জন্য আবেদন জমা পড়েছে ৬৪ লক্ষ ৩১ হাজার ৯৫১ টি।

Advertisements

গত বছর থেকেই স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প টি চালু করা হয়েছে।লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের জন্য স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প থাকা অবশ্যিক। ফলে আবেদনের সংখ্যাও লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। তবে এবার মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা করেছেন ১লা সেপ্টেম্বর থেকেই রাজ্যের সমস্ত মহিলারা লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের জন্য টাকা পেয়ে যাবেন। সাধারণত এই প্রকল্পের জন্য এসসি,এসটি এবং ওবিসিরা পাবেন ১০০০টাকা।সাধারণ মহিলা অর্থাৎ জেনারেল মহিলাদের জন্য মাসে ৫০০ টাকা।

Advertisements

সরকারের তরফ থেকে এই কাজটি দ্রুত খতিয়ে দেখা হচ্ছে ।সমস্ত আবেদন পত্র গুলোকে নিখুঁত ভাবে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সমস্ত প্রকল্পের কাজ যাতে পুজোর আগে হয়ে যায় সেদিকে বিশেষ নজর দিচ্ছে রাজ্য। রাজ্যের সমস্ত মহিলাদের পুজোর আগেই তাদের একাউন্টে টাকা পেয়ে যায় সেদিকে যথেষ্ট কড়া ভাবে নজর দেওয়া হচ্ছে। এর আগে চালু হওয়া ‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্পে রাজ্যের সমস্ত বাসিন্দারা নানাবিধ সুযোগ-সুবিধা পেয়ে আসছেন। দুয়ারে সরকার থেকে সাধারণভাবে ১৮ টি প্রকল্প পরিষেবা পান রাজ্যের মানুষ।

এই প্রকল্পের সাথে যুক্ত হয়েছে বর্তমানে লক্ষীর ভান্ডার , খাদ্যসাথী এবং স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প। ফলে এই প্রকল্প গুলির জন্য প্রচুর পরিমাণে আবেদন জমা পড়েছে। বর্তমানে মোট আবেদন সংখ্যা হল ২৭ লক্ষ ৮৭ হাজার ৬০৭ টি। এছাড়াও জাতির শংসাপত্রের আবেদন জমা পড়েছে প্রায় ২৭ লক্ষ ৮৬ হাজার ৮৯৪ টি। বিনামূল্যের শ্রমিক সুরক্ষা যোজনা তে ও প্রচুর পরিমাণে আবেদন জমা পরেছে । এই আবেদনের সংখ্যা হল ২৪ লক্ষ ৩২ হাজার ৯৫৭ টি।

তবে এই সমস্ত আবেদন সুষ্ঠুভাবে খতিয়ে দেখা হচ্ছে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে। এত বিপুল পরিমাণে আবেদন জমা পড়েছে তার জন্য নূন্যতম সময় প্রশাসন চাইছে রাজ্যবাসীর কাছ থেকে। তবে যত দ্রুত সম্ভব এই সমস্ত পরিষেবা রাজ্যবাসী পাবেন বলে প্রশাসন সূত্রে খবর।