ভারতীয় ক্রিকেট টিমে আবারো বড় ঝটকা! শিখর ধবনের পর এবার টিম থেকে ছিটকে গেলেন এই ভারতীয় ক্রিকেটার….

সামনে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে দুরন্ত সিরিজ জয়ের পর সামনে আসতে চলেছে নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে সিরিজ। গত মাসেই নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতকে দুটি টেস্ট ম্যাচের সিরিজ খেলতে হবে। এইজন্য এখনো পর্যন্ত ভারতীয় দল ঘোষণা করা হয়নি। ভারতের পক্ষে যথেষ্ট চ্যালেঞ্জিং হবে বলে মনে করা হচ্ছে। রেকর্ড বলছে 2009 সালের পর থেকে ভারতীয় দল নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে কোন টেস্ট ম্যাচ জেতেনি।

ফলে এই দিক থেকে বিচার করতে গেলে এই টেস্ট সিরিজ খুবই চ্যালেঞ্জিং হতে চলেছে ভারতের কাছে।
ঠিক এমনই একটি সময়ে ভারতের জন্য খারাপ খবর এলো। টেস্ট ম্যাচে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ পেস বোলার ইশান্ত শর্মা নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে অনুষ্ঠিত হওয়া টেস্ট সিরিজ থেকে চোটের কারণে ছিটকে গেলেন। দিল্লির হয়ে রঞ্জি ট্রফি ম্যাচ খেলার সময় বল করতে গিয়ে তার গোড়ালি মচকে যায়। এই চোট যথেষ্ট গুরুতর বলে জানানো হয়েছে।

আর তাই নিউজিল্যান্ড সফরে তিনি থাকছেন না।আর ইশান্ত শর্মার মতন একজন গুরুত্বপূর্ণ বলার না থাকায় ভারতীয় ক্রিকেট টিমের পক্ষে এটা একটা বড় ধাক্কা। গত দু’বছর ধরে ভারতীয় দলের হয়ে টেস্ট ম্যাচে তিনি বলেন করে গেছেন, ফলে ইশান্ত শর্মার অনুপস্থিতি ভারতকে অনেকটা চিন্তিত রাখবে।ভারতীয় দল 2009 এবং 2014 সালে নিউজিল্যান্ডের সাথে টেস্ট সিরিজ খেলেছিল। এই দুটি সিরিজে ভারতীয় দলের হয়ে ইশান্ত শর্মা খেলেছিলেন।

বর্তমানে তিনি হলেন একমাত্র খেলোয়াড় যিনি এই দুটি সফরে ভারতীয় দলের হয়ে টেস্ট ম্যাচে বোলিং করেছিলেন। ফলে তিনি একজন অভিজ্ঞ খেলোয়াড় ছিলেন। 2014 সালে নিউজিল্যান্ড সফরে ভারতীয় টিমের অন্যতম বলার মোহাম্মদ সামিও ছিলেন কিন্তু জসপ্রীত বুমরাহ নিউজিল্যান্ডের সাথে এই প্রথম খেলতে চলেছেন। তিনি এখনো পর্যন্ত সেখানে একটি ও টেস্ট ম্যাচ এবং ওয়ানডে খেলেননি। ইশান্ত শর্মা আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের দুরন্ত বোলিং এর প্রদর্শন দেখিয়েছেন।

তিনি এখনও পর্যন্ত ছটি টেস্ট ম্যাচে মোট 25 জন ব্যাটসম্যানকে আউট করেছিল। এমনকি বাংলাদেশের সাথে শেষ ম্যাচের প্রথম ইনিংসে তিনি 5 টি উইকেট নিয়েছিলেন এবং রঞ্জি ট্রফিতে তিনি 3 টি ইনিংসে মোট 11 টি উইকেট নিয়েছিলেন।নিউজিল্যান্ড আর ভারতের মধ্যে প্রথম টেস্ট খেলা হবে 21 ফেব্রুয়ারি ওয়েলিংটনে। এবং দ্বিতীয় টেস্ট খেলা হবে 29 শে ফেব্রুয়ারি ক্রাইস্টচার্চে। অন্যদিকে ভারতীয় দল টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পরপর তিনটি সিরিজ জিতে 336 পয়েন্টের পৌঁছায় যা এখনো পর্যন্ত পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে রয়েছে।

ফলে একদিকে ভারত পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে আবার অন্যদিকে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের পূর্ব রেকর্ড চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে এবার দেখা যাক ভারত কি আদেও এই রেকর্ড ভেঙ্গে টেস্ট সিরিজ নিজেদের নামে করতে পারে কিনা।