গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত, ঘটনাস্থলেই ১১ জনের মৃত্যু

আরো একটি বিমান দুর্ঘটনার কথা শুনতে পাওয়া গেল বছরের শেষের দিকে। তামিলনাড়ুর কন্নুরে সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টার ভেঙে পড়ল। সূত্র মারফত জানা গেছে, ওই হেলিকপ্টারে সেনাবাহিনীর বেশ কয়েকজন শীর্ষ কর্তারা ছিলেন। ইতিমধ্যেই ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানতে পারা গেছে। ওই হেলিকপ্টারে ছিলেন সিডিএস বিপিন রাওয়াত, যার সম্পর্কে এখনো কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

দুর্ঘটনার কথা শোনা মাত্রই প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং রওনা দিয়েছেন ঘটনাস্থলের উদ্দেশে। ইতিমধ্যেই প্রতিরক্ষা মন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে গোটা বিষয় নিয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছেন। তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এমকে স্ট্যালিন স্থানীয় প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন। গোটা ঘটনায় স্বাস্থ্য নির্ভর সাহায্যের জন্য।

যে চপার দুর্ঘটনার কবলে পড়েছে সেটি হল MI- 17। এই হেলিকপ্টারের মধ্যে ছিলেন সিডিএস বিপিন রাওয়াত, তার স্ত্রী, নায়ক গুরুসেবক সিং, নায়ক জিতেন্দ্র কুমার, ব্রিগেডিয়ার এনএস লিডার, লেফটেন্যান্ট কর্নেল হরজিন্দর সিং, ল্যান্সনায়েক বি সাই তেজা, ল্যান্সনায়েক বিবেক কুমার, হাবিলদার সৎপাল।

মাত্র ২০ মিনিটের সফরে হঠাৎ করে আকাশে ওড়ার ১০ মিনিটের মাথায় এই বিরাট দুর্ঘটনাটি ঘটে যায়। ভেঙে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে হেলিকপ্টারে আগুন লেগে যায়। কিন্তু এই হেলিকপ্টার সাধারণত একটি নিরাপদ হেলিকপ্টার,তাই এই হেলিকপ্টারে করে ভিআইপিদের নিয়ে আসা হয়। যদিও ভিআইপিদের নিয়ে আসার আগে আরো একবার পরীক্ষা করে নেওয়া হয়েছিল কিন্তু তারপরেও কিভাবে এটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ল, তা জানতে পারা যায় নি। যান্ত্রিক ত্রুটি নাকি চালকের ভুল, তা নিশ্চিত করা যাবে তদন্তের পর।