সমুদ্রের তলায় হতে চলেছে ভারতের সবচেয়ে বড় রেলপথ। যেখানে মুম্বাই থেকে সুদূর পাড়ি দেবে….

ভারতে শুরু হবে ইঞ্জিন বিহীন ট্রেন, এটা তো আমরা আগেও শুনেছি কিন্তু এবার যে খবরটা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি সেটা শুনে আপনারা আশ্চর্য হয়ে যাবেন । ভারতে প্রথমবার জলের তলায় চলবে ট্রেন।শুধু এটাই নয় এই ট্রেনটি মুম্বাই থেকে সুদূর আরব আমিরশাহী পর্যন্ত যাবে। আর এই পরিকল্পনাটি করেছে দুবাইয়ের একটি সংস্থা। ভবিষ্যতে সেই রেল লাইনের পথ ধরে সেই দেশের পর্যটকেরা যাতায়াত করতে আসতে পারবেন , শুধু তাই নয় এই পথ ধরে দুই দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য হতে পারে বলে অনেকের মন্তব্য।

‌দুবাইয়ের ফুজাইয়া থেকে মুম্বাই দূরত্ব ২০০০ কিলোমিটার। জানা যাচ্ছে যে ট্রেনটি যে পথ দিয়ে যাবে সেটি হবে সমুদ্রের নিচে এবং সেটি হবে ভাসমান। সেই সঙ্গে তার সাথে তেলের পাইপলাইন বসানো হবে এবং পণ্যবাহী ট্রেনও ওই রাস্তায় জাতাজাত করবে।দুবাইয়ের যিনি ন্যাশনাল অ্যাডভাইসার ব্রুর লিমিটেড তিনি এই পথ তৈরির পরিকল্পনা করছেন। এই সংস্থার যিনি প্রতিষ্ঠাতা “আলসেকি” তিনি জানিয়েছেন যে, এই ব্যাপারটি এখনো পরিকল্পনায় পর্যায়ে রয়েছে এটি এখনো বাস্তবে করা হয়নি। দুবাইয়ের ফুজাইয়ের সঙ্গে মুম্বাই রেল পথ জুড়ে যাওয়ার ফলে ভারত ও সংযুক্ত আমিরশাহির মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য করা সম্ভব হবে।

এই রেলপথটি নির্মাণের ফলে দুবাই থেকে তেল পাঠানো সহজ হবে মুম্বাইয়ে এছাড়াও নর্দমার জল দুবাই নিয়ে আসা হবে। আর এই পথে বিভিন্ন সংস্থারও ব্যবসা বাণিজ্য করতে পারবে।আলসেখি সংবাদ মাধ্যমে জানাচ্ছেন যে ,এই সকল কাজ করার আগে কিছু কথা মাথায় রাখতে হচ্ছে তাদের। তাদের অনুমান তারা প্রথমে কিছু সমীক্ষা করে দেখবে যে এখানে কোনো রেল পাতা যাবে কিনা, কারণ এই রেল পথের দুরত্ব হবে ২০০০ কিলোমিটার। অার ভালো খবর হলো ,চিন সরকার নিনগোবো- সাংহাই ও জেসুহান সমুদ্রের নিচে রেলপথ জুড়ার ব্যাপারে সবুজ সংকেত দিচ্ছেন ।