বিরাট কোহলি বনাম সৌরভ গাঙ্গুলী! কাকে সাপোর্ট করছে দেশের জনগণ, কার পাল্লা ভারী! জানুন বিস্তারিত

আপনি যত উপরের দিকে উঠবেন, ততই আপনাকে নিয়ে মতবিরোধ তৈরি হবে, আপনাকে নিয়ে তৈরি হবে তর্ক-বিতর্ক। সম্প্রতি ক্রিকেট দুনিয়ায় এমন একটি বিষয় নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে যা আমাদের কাছে একেবারেই অভিপ্রেত নয়। একদিকে যেমন রয়েছেন সৌরভ গাঙ্গুলী তখন অন্যদিকে বিরাট কোহলি। এই দুই ব্যক্তিত্বর সাথে বাঙালি তথা ভারতবাসীদের একটি আলাদা সম্পর্ক রয়েছে। কিন্তু সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে নিয়ে আমাদের আলাদা একটি ভালোবাসা আছে মনের মধ্যে তা বলাই বাহুল্য।

এবার চলুন জেনে নেওয়া যাক কি নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। সম্প্রতি বিরাট কোহলিকে অধিনায়কত্ব থেকে বাদ দিয়ে দেওয়ার প্রসঙ্গ নিয়ে সৌরভ গাঙ্গুলী বলেছিলেন,বিরাট কোহলির সম্মতি নিয়েই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে বিরাট কোহলি জানান, এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে তাঁকে কোন কথা বলা হয়নি।

যদিও বিরাট কোহলির এই বক্তব্যের পর সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের পক্ষ থেকে আর কোন কথা বলা হয়নি। বোর্ডের উপর ব্যাপারটি ছেড়ে দিয়ে তিনি চুপ করে রয়েছেন।কিন্তু সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় কোন কথা না বললেও আমজনতা নিজেদের মধ্যে তর্ক বিতর্কে মেতে উঠেছেন। একদিকে কিছু মানুষ যেমন বোর্ডের সমর্থনে কথা বলেছেন তেমন অন্যদিকে কিছু মানুষ বিরাট কোহলির সমর্থনে কথা বলেছেন।

এই বিষয়ে একদিকে যেমন সৌরভ গাঙ্গুলীকে নিয়ে কদর্য ভাষা প্রয়োগ করা হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায় তেমন অন্যদিকে বিরাট কোহলির অধিনায়কত্ব নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। কি সত্যি কি মিথ্যা তা জানার অবকাশ নেই আমাদের কাছে। তবে সৌরভ গাঙ্গুলীর বিরুদ্ধে এতদিন যারা কথা বলছিল আজ তারাই সৌরভ গাঙ্গুলীর পাশে দাঁড়িয়ে কথা বলতে শুরু করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সম্প্রতি একটি ট্রেন্ড ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাহল,# nation stands with Dada। বিপুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে এই হ্যাশট্যাগটি। হাজার হাজার মানুষ টুইট করেছেন এই প্রসঙ্গে। পোস্ট যারা করেছেন তারা প্রায় প্রত্যেকেই সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় সমর্থক। কিভাবে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় বুদ্ধির দ্বারা ভারতীয় ক্রিকেটকে আরো একবার দাঁড় করাতে সমর্থ হয়েছেন সেই বিষয়ে কথা বলতে শুরু করেছেন অনেকে। দিনের শেষে সম্পূর্ণ ভারতবর্ষ যে দাদার হয়ে কথা বলবে তা ইতিমধ্যে স্পষ্ট হয়ে গেছে।