ভারতীয় বংশোদ্ভূত নার্স সিঙ্গাপুরে পেলেন রাষ্ট্রপতি সম্মান, করোনার বিরুদ্ধে লড়ে বাঁচিয়েছে অনেকর প্রাণ

গোটা বিশ্ব জুড়ে চলছে এখন মরন ভাইরাস করোনা দ্রাপট। আর গোটা বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস দমনে সবার প্রথম সারির মধ্যে থেকে যারা এই ভাইরাসের সাথে লড়াই করছেন তাদের মধ্যে নাম রয়েছে ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীদের তার পরে যাদের নাম আসছে তাদের মধ্যে পুলিশকর্মী সহ আরো অনেকের। আর এবার এই করোনা মহামারী চলাকালীন সিঙ্গাপুরে ফ্রন্টলাইন যোদ্ধা হিসেবে কাজ করার জন্য এক ভারতীয় বংশোদ্ভূত নার্স রাষ্ট্রপতি পুরস্কার পেলেন। এই মহিলার নাম কালা নারায়াণসম্য, যার বয়স 59 বছর।

এক্ষেত্রে পাঁচজন নার্স এই পুরস্কারটি পেয়েছেন যাদের মধ্যে রয়েছে তারও নাম তাদের সবাইকে একটি শংসাপত্র, একটি ট্রফি এবং সিঙ্গাপুরের রাষ্ট্রপতি হালিম ইয়াকুব স্বাক্ষরিত প্রায় 5 কোটি 38 লক্ষ টাকা হয়েছে।এই মহিলা নার্স কালা নারায়াণসম্য হলেন উডল্যান্ডস স্বাস্থ্য ক্যাম্পাসের নার্সিংয়ের উপ-পরিচালক। আর যে পুরস্কারে তিনি ভূষিত হলেন সেটি তিনি পেয়েছেন করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ অনুশীলনটি ব্যবহার করার জন্য। এই আর্টস প্রেসিডেন্ট অ্যাওয়ার্ড পেয়ে খুবই খুশি তিনি।

এরপর তিনি বলেন আমি আমার পরবর্তী প্রজন্মের নার্সেদের প্রস্তুত করতে আমার জীবন ব্যয় করবো। তবে এখানেই শেষ নয় তিনি আরো বলেন যে আমি তাদের শিখিয়ে দেবো নার্সিং কোনদিনই ব্যর্থ যাবে না, রাস্ট্রপতির এরকম একটি পুরস্কার নার্সেদের সম্মান জানায় যারা নিয়মিতভাবে রোগীদের প্রতি দক্ষ এবং যত্নবান হন। 2002 সালের পর থেকে এটি শুরু করা হয় এবং এখনও পর্যন্ত প্রায় 77 জন্য এই সম্মানে ভূষিত হয়েছেন। যারা এক্ষেত্রে নার্স, যারা শিক্ষা গবেষণা এবং প্রশাসনে অবদান রাখছেন তাদেরকে এই সম্মানে ভূষিত করা হয়।

অন্যদিকে কালা জানায় এই পেশায় আসা মহিলাদের আমি বলতে চাই এরকম অনেক পুরস্কার এবং প্রচার আপনার জন্যও ভবিষ্যতে অপেক্ষা করছে। তাই আপনি একজন নার্স হয়ে রোগীদের সেবা দিন আর এই পুরস্কার আপনার নামে করে নিন। আর আপনার ধৈর্য এবং আপনার পরিশ্রম কোনদিনই ব্যর্থ যাবে না। ভবিষ্যতে আপনারও জন্য এরকম এক পুরস্কার অপেক্ষা করছে চাইলে আপনিও জিততে পারেন এই পুরস্কার।