জিন্দালের পর চীনকে হাইভোল্টেজ ঝটকা হিরো সাইকেলের! বাতিল করা হল 900 কোটি টাকার চুক্তি..

ভারত এবং চীনের মধ্যে উত্তেজনা এখন চরমে। সম্প্রতি গালওয়ান উপত্যকাতে চীন এবং ভারতের মধ্যে যে সংঘর্ষ বাধে যেখানে চীনা সেনারা নিশংসভাবে ভারতীয় সেনাদের উপর হামলা করে। এতে ভারতের 20 জন সেনা শহীদ হন। আর এই ঘটনার পর থেকেই ভারতবাসীরা সমস্ত চীনা পণ্য বয়কট করার সিদ্ধান্ত নেয়। পরিস্থিতি এমন হয়ে দাঁড়িয়েছে যে ভারতীয়রা এখন একটা পিন যদি কিনতে যাচ্ছে তাহলে তারা সেক্ষেত্রে এটা চেক করে নিচ্ছে সেটা “মেড ইন ইন্ডিয়া” রয়েছে কীনা।

এছাড়াও কয়েকদিন আগে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে 59 টি চীনা অ্যাপ ভারতে পুরোপুরি নিষিদ্ধ ঘোষণা করে দেয়। শুধু তাই নয় গঙ্গা নদীর তীরে যে ব্রিজ তৈরীর কথা ছিল তা এখন আপাতত স্থগিত রাখা হয়েছে কারণ ব্রিজ তৈরি যে চারটি সংস্থাকে টেন্ডারে ডাকা হয়েছিল তার মধ্যে দুটি চীনা সংস্থা ছিল। বর্তমানে এখন ভারতের একটাই লক্ষ্য অর্থনৈতিক দিক থেকে এবং সামরিক দিক থেকে চীনকে পুরোপুরি জব্দ করার। চীনের উপর বদলা নেওয়ার জন্য শুধুমাত্র ভারতবাসীরা নয় বড় বড় নামিদামি ব্যবসায়ীরাও নেমে পড়েছে।

ভারতীয় ব্যবসায়ীরা চাইনিজ সরকারের বিরুদ্ধে একেবারে কোমর বেঁধে নেমে পড়েছে। আর বর্তমানে কয়েকদিন আগেই ভারতের পাওয়ার এবং স্টিলের ব্যবসা করা জিন্দাল গ্রুপের এই নিয়ে বিশেষ ঘোষণা করা হয় যেখানে তারা জানান চীন থেকে এর আগে যে 400 মিলিয়ন ডলারের মাল আমদানি করা হতো ভারতে তা আর আমদানি করা হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে জিন্দাল গ্রুপ। আর এবার চীনকে আরো এক বড় ঝাটকা দিয়ে চীনের সাথে 900 কোটি টাকার ব্যাবসায়ী চুক্তি বাতিল করলো হিরো সাইকেল।

এ বিষয়ে হিরো কোম্পানির চেয়ারম্যান পঙ্কজ মুঞ্জাল বলেন – ” আগামী তিন মাসের মধ্যে আমাদের চীনের সাথে প্রায় 900 কোটি টাকার বাণিজ্য হওয়ার কথা ছিল কিন্তু বর্তমানে ভারত চীন সমস্যার কারনে আমরা এই সেই বাণিজ্য বাতিল করেছি। এবং এরই সাথে তিনি আরো জানান যে বর্তমানে চীনের পন্য বয়কট করার জন্য আমরা‌ এইরকম উদ্যোগ নিয়েছি। আশাকরি আমাদের এই উদ্যোগকে সকল ভারতবাসী সমর্থন করবে এবং তারাও চীনা সামগ্রী বয়কটে এগিয়ে আসবে।” অপর দিকে চীনের সাথে বানিজ্য বন্ধ করবার পর তার বিকল্প হিসাবে এখন জার্মানির দিকে চোখ রাখছে ভারতীয় কোম্পানি হিরো সাইকেল।