গুগলের অ্যান্ড্রয়েড প্রযুক্তির ভুল ধরিয়ে মোটা অঙ্কের পুরস্কার জিতলেন ভারতীয় যুবক

অনেকেই বলেন কম্পিউটার নাকি কখনো ভুল করতে পারে না। কিন্তু কথাটা একেবারেই সত্যি কথা নয়। কম্পিউটারের দোষ অথবা ত্রুটিকে বলা হয় সফটওয়্যার বাগ। গুগলের অ্যান্ড্রয়েড প্রযুক্তির তেমনই একটি ত্রুটি ধরিয়ে দিলেন ভারতের রনি দাস। শুধু ধরিয়ে দিলেন নয়, ত্রুটি ধরিয়ে দিয়ে জিতে নিলেন লক্ষ লক্ষ টাকার পুরস্কার। সম্প্রতি রনি দাস গুগলের অ্যান্ড্রয়েড ফোরগ্রাউন্ড সার্ভিসের ত্রুটি আবিষ্কার করেন। এই ত্রুটি আবিষ্কার করার জন্য তাঁকে পুরস্কৃত করা হয় ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় সাড়ে তিন লক্ষ টাকা।

গুগলের এই সফটওয়্যারজনিত ভ্রান্তি হ্যাকারদের কাজ অনেক বেশি সহজ করে দিতে পারত। সাধারণত এই ত্রুটির মাধ্যমে অ্যান্ড্রয়েড ফোনের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করে হ্যাকাররা। গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নিয়ে যে কোন মুহূর্তে গ্রাহকদের সর্বস্বান্ত করে নেয় তারা। গত মে মাসে এই ত্রুটির বিষয়টি গুগলকে জানিয়ে সতর্ক করেছিল রনি।

গুগলে কর্মরত অ্যান্ড্রয়েড প্রযুক্তি নিরাপত্তা বিষয়ক দল বলেন, অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্মে একটি অ্যাপ তৈরি করার সময় এই ভুলটি তৈরি হয় এবং এই ভুলটি ধরিয়ে দেয় রনি দাস।

সংবাদমাধ্যম সূত্র থেকে জানা গেছে, প্রাপ্ত পুরস্কারের কথা জানিয়ে অসমের বাসিন্দা রনি দাসকে ইমেইল করে গুগোল। সেখানে লেখা থাকে, আপনি যে গুরুত্বপূর্ণ কাজটি করেছেন তার স্বীকৃতি হিসেবে আপনাকে পাঁচ হাজার ডলার সম্মানী দেওয়া হচ্ছে। আমরা সাধারণত যে কাজগুলি জন্য পুরস্কার দিয়ে থাকে সকলকে, এটি তার থেকে একেবারে ব্যাতিক্রম। আপনি আমাদের উচ্চ মানের একটি সমস্যা নজরে নিয়ে এসেছেন। পরবর্তী সময়ে এই ভুলের জন্য আমাদের মাশুল দিতে হতো। সংস্থার তরফ থেকে আপনাকে ভবিষ্যতে এই বিষয়ে অবগত করা হবে।

জানা গেছে, অ্যান্ড্রয়েড প্রযুক্তি ত্রুটি ধরিয়ে দেওয়ার পর থেকেই রনির সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছে গুগল। ভবিষ্যতে যদি এরকম কোন ত্রুটি ধরা পড়ে, সেক্ষেত্রেও যাতে গুগোলকে অবগত করে রনি তার জন্য রনির সাথে যোগাযোগ স্থাপন রেখেছে গুগল। কিন্তু নিরাপত্তার কারণে ভুল ত্রুটির বিষয়টি প্রকাশ্যে নিয়ে আসেনি রনি এবং গুগোল দুজনেই।