আরো একটি বড় সফলতা ভারতীয় সেনাবাহিনীর! গভীর রাত্রে ভারতীয় সেনাবাহিনীর পাল্টা কার্যবাহীতে 5টি পাকিস্তানি চৌকিকে গুঁড়িয়ে দেওয়া হল…

আপনাদের বলে রাখি গতকাল ভারতীয় সেনাবাহিনীর পাকিস্তানের উপর এয়ার স্ট্রাইকের পর থেকে পাকিস্তানে সেনা, প্রশাসন মানসিক মনোবল হারিয়ে ফেলেছে।আর কালকে তারা মানসিক মনোবল হারিয়ে বিকেল থেকে শুরু করে মধ্যরাতে পর্যন্ত বেশ কয়েকবার নিয়ম লঙ্ঘন করে ফেলেছে সীমান্ত বর্ডার এ। আরে মানসিক মনোবল হারিয়ে ভারতের ওপর গোলাবর্ষণ করেছে পাকিস্তান সেনা।তবে ভারতীয় সেনা ও কোনমতে পিছিয়ে যায়নি ভারতীয় সেনা পাল্টা জবাবে পাকিস্তানের বেশ কয়েকটি ঘাঁটি ধুলোয় গুড়িয়ে মিশিয়ে দেওয়া হয়েছে। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী জানতে পারা গেছে কাল রাত 10 টা থেকে পাকিস্তানের সেনা বর্ডার সীমান্ত থেকে গোলাবর্ষণ শুরু করে।

আর তারপরই ভারতীয় সেনা তার পাল্টা জবাব দিলে এক পাকিস্তানি সেনা জওয়ান ও মারা যায়। তবে তারপরও তারা থেমে যায়নি মধ্যরাতে পাকিস্তান আবার ভারতের ওপর সীমান্ত থেকে আক্রমণ করে। আপনাদের বলে রাখি মধ্যরাতে পাকিস্তানি সেনারা সীমান্ত থেকে ভারতের ওপর চুক্তি ভঙ্গ করে আক্রমণ করতে শুরু করে।আর পাকিস্তানের এই হামলার ফলে ভারতের পুনচ এলাকার বেশ কয়েকটি ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কয়েকজন সেনা জওয়ান ও এর ফলে আহত হয়। তবে ভারত পাকিস্তানের উপর পাল্টা কার্য বাহি করে এবং পাঁচটি পাকিস্তানের চৌকিকে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় শুধু তাই নয় এই চৌকি গুলিতে থাকা পাকিস্তানি সেনারা আহত হয়েছে তবে এখনো ক’জন মারা গেছে তা নিয়ে স্পষ্ট খবর আসেনি। অধিকারীদের সূত্রে খবর পাকিস্তান বিকেলে সাড়ে পাঁচটা থেকে নিয়ম উলঙ্ঘন করে সীমান্ত থেকে 120 mm মটরের সাহায্যে গুলিবর্ষণ করতে শুরু করেছিল।

আর পাকিস্তান ভারতের অগ্রিম ছবি গুলিকে নিশানা করার চেষ্টা করছিল যা খবর অনুসারে জানতে পারা যায়।এমনকি অধিকারীর সূত্রে খবর পাকিস্তানি সিস ফায়ার’ কেউ লংঘন করে যে কোনো সেক্টরে হঠাৎ করে গুলিবর্ষণ করতে শুরু করে যার ফলে আমাদের 5 জন জন আহত হয় তাদেরকে হসপিটালে ভর্তি করানোও হয়। আর তারপরেই ভারতীয় সেনার তরফ থেকে কার্যকরী করে পাকিস্তানের পাঁচটি চৌকিকে ভেঙে দেওয়া হয়েছে।তবে আপনাদের বলে রাখি চব্বিশে ফেব্রুয়ারি ভারতীয় বায়ুসেনা পাকিস্তানের উপর যে আতংবাদি অপারেশন চালিয়েছিল তার পরে আক্রশিত হয়ে পাকিস্তান সীমান্তে নিয়ম উলঙ্ঘন করে। তবে এখানে দেখার বিষয় একটাই যে ভারতীয় বায়ুসেনারা আতংবাদিদের ওপর অপারেশন চালিয়েছিল কিন্তু তারপর ও পাকিস্তানি সেনা রা তাদের বদলা নেওয়ার জন্য সীমান্তে নিয়ম পর্যন্ত উলঙ্ঘন করছে।

অর্থাৎ এটা থেকে একটা কথা স্পষ্ট যে, পাকিস্তানি সেনা ও আতংবাদি দের আলাদা নজর দেখা হলেও তারা সকলে একই। আর পাকিস্তানের সেনা আতংবাদি দের সমস্ত ভরণ পোষণ করে এই কারণে গতকালের অপারেশনের পর পাকিস্তানের সেনা পাক-ভারত পরিস্থিতিকে যুদ্ধের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।