ভারতের অস্ত্র ভাণ্ডারে শামিল হতে চলেছে অত্যাধুনিক 83 টি তেজস যুদ্ধবিমান, চিন্তা বাড়লো চীনসহ পাকিস্তানের..

এটা নিঃসন্দেহে বলা যেতে পারে যে যত দিন যাচ্ছে তত ভারত সামরিক দিক থেকে শক্তিশালী হয়ে উঠছে। সামরিক দিক থেকে শক্তিশালী হয়ে ওঠার জন্য বিভিন্ন ধরনের অত্যাধুনিক অস্ত্রশস্ত্র আনা হচ্ছে। এবার আরও একধাপ এগিয়ে দেশীয় প্রযুক্তিতে অত্যাধুনিক ভাবে তৈরি 83 টি তেজস যুদ্ধবিমান কিনতে চলেছে ভারতীয় বায়ুসেনা। এর ফলে যেমনি ভারতের সামরিক শক্তিশালী হয়ে উঠবে অপরদিকে চীন ও পাকিস্তানের মতো শত্রু দেশগুলিও জব্দ থাকবে।

খবর সূত্রে জানা গেছে, হিন্দুস্তান অ্যারোনটিকস লিমিটেডের কাছ থেকে এই তেজস যুদ্ধবিমান কিনতে চলেছে ভারতীয় বায়ুসেনা। আর এর জন্য 39,000 কোটি টাকার চুক্তি হয়েছে বলে জানা গেছে। প্রথমে এই চুক্তির জন্য ওই সংস্থা 56 হাজার 500 কোটি টাকা দাবি করে। এরপর প্রায় এক বছর ধরে বায়ুসেনা এবং হিন্দুস্তান অ্যারোনটিকস লিমিটেডের মধ্যে এ নিয়ে দরকষাকষিতে এই চুক্তি নেমে দাঁড়ায় 39,000 কোটি টাকায়। 83 টি তেজস যুদ্ধবিমান তৈরি করার জন্য বিপুল পরিমাণ অর্থ দাবী করার পর প্রথমে এই চুক্তি করতে নারাজ হয়েছিল প্রতিরক্ষা মন্ত্রক।

এরপর ওই সংস্থা যখন দাম কমাতে রাজি হয়ে যায় তখন প্রতিরক্ষা মন্ত্রক তাদের সিদ্ধান্ত বদলে নেন। অপরদিকে এ নিয়ে ক্যাবিনেট কমিটির কাছে চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য চুক্তির খসড়া পাঠানো হয়েছে। মনে করা হচ্ছে একটি শে মার্চ এর আগে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা থেকে অনুমোদন চলে আসবে। আগামী তিন বছরের মধ্যে এই তেজস যুদ্ধবিমান ভারতের হাতে চলে আসবে বলে অনুমান করা হচ্ছে। বর্তমানে বায়ু সেনার কাছে যুদ্ধ বিমানের সংখ্যা খুবই কম। যেখানে বায়ু সেনার কাছে কম সে কম 40 টি ফাইটার স্কোয়াড্রনের প্রয়োজন আর সেখানে রয়েছে মাত্র 30 টি।

তাই এই ঘাটতি পূরণ করার জন্যেই 83 টি তেজস যুদ্ধবিমান আনতে চলেছে ভারত। এই তেজস যুদ্ধবিমান টি বানিয়েছে সামরিক বিমান প্রস্তুতকারী সংস্থা হিন্দুস্তান অ্যারোনটিকস লিমিটেড। ‘লাইট কমব্যাট এয়ারক্রাফট’ টি পুরোপুরিভাবে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি। বায়ুসেনার অন্যতম বিমান মিগ-21 এর জায়গা নিতে চলেছে এই তেজস যুদ্ধবিমান। ইতিমধ্যেই এই যুদ্ধবিমান একাধিক পরীক্ষায় সফল হয়ে গেছে। গত বছরে প্রায় কুড়ি হাজার ফুট উচ্চতায় রুশ নির্মিত ‘আইএল-78’ নামক জ্বালানিবাহী বিমান থেকে এই তেজস বিমানে ইন্ধন ভরা হয়। কিছুক্ষণের মধ্যেই প্রায় 19 হাজার লিটার জ্বালানি ঢুকে যায় এই তেজস বিমানে। এবং এর সাথে সাথে আকাশের মাঝখানে জ্বালানি ভরে বিশ্বের প্রথম সামরিক শক্তির তালিকায় নাম লেখা হয় ভারতের।

Related Articles

Close