টেক নিউসনতুন খবরবিশেষ

চীন কে টেক্কা দিতে খুব শীঘ্রই ভারত চালু করতে চলেছে 6,940 টি দেশীয় অ্যাপ..

সম্প্রতি গালওয়ান উপত্যকায় চীন এবং ভারতীয় সেনাদের সংঘর্ষের পর 20 জন ভারতীয় সেনা জওয়ান শহীদ হন। তার কিছুদিন পরেই ভারত সরকারের তরফ থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় চীনা অ্যাপ গুলিকে পুরোপুরি নিষিদ্ধ করার। এতে Tiktok, Xender, Viva Video Editor, Cam Scanner এর মতো অ্যাপ গুলিকে নিষিদ্ধ করা হয়। এই অ্যাপ গুলির মধ্যে অনেক অ্যাপই ছিল যেগুলি আমরা দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহার করতাম। ফলে এই অ্যাপ গুলি নিষিদ্ধ হওয়ার পর মোবাইল ব্যবহারকারীদের অসুবিধার সৃষ্টি হলেও দেশের স্বার্থে কেন্দ্রীয় সরকারের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন সকলেই।

তবে এই অ্যাপ গুলির অনুরূপ অন্য অ্যাপ বের করার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে ভারত সরকার যাতে মোবাইল ব্যবহারকারীদের অসুবিধার সৃষ্টি না হয়। এর জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে একটি প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এটিকে মোদি সরকার নাম দিয়েছে ‘আত্মনির্ভর ভারত’ চ্যালেঞ্জ। এতে ব্যবসা, স্বাস্থ্য, ই- লার্নিং, গেমস, বিনোদন, সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং এবং ওয়ার্ক ফ্রম হোম ইত্যাদি বিষয়ে অ্যাপ্লিকেশন তৈরির কথা বলা হয়েছিল।

এই প্রতিযোগিতায় প্রতিটি বিভাগে শীর্ষস্থানীয় 8 জনকে বেছে নেওয়া হবে এবং তাদেরকে কুড়ি লক্ষ টাকা করে পুরস্কার দেওয়া হবে। অ্যাপগুলি ব্যবহার করা কতটা সহজ হবে, এগুলিতে কী কী ধরনের ফিচার থাকবে এবং কতটা সুরক্ষিত হবে ব্যবহারকারীদের জন্য সমস্ত দিক খতিয়ে দেখা হবে। খবর সূত্রে জানা গিয়েছে যে, আত্মনির্ভর চ্যালেঞ্জের শেষ দিন অর্থাৎ 26 জুলাই মোট 6940 টি দেশীয় অ্যাপের রেজিস্ট্রেশন হয়েছে। এর মধ্যে মোট 3939 জন ব্যক্তি এবং 3001 টি সংস্থা এই চ্যালেঞ্জে রেজিস্ট্রেশন করেছেন।

এরমধ্যে 3000 টি মেড ইন ইন্ডিয়া অ্যাপ সম্পূর্ণরূপে প্রস্তুত হয়ে গেছে। শুধুমাত্র সরকারের অনুমতি পাওয়ার অপেক্ষা তারপরেই বাজারে ছাড়া হবে এই অ্যাপ গুলি। আবার অনেকে ইতি মধ্যেই বাজারে ছাড়া হয়েছে এবং মোবাইল ব্যবহারকারীর ইতিমধ্যেই অ্যাপগুলি ব্যবহার করছেন। সরকারি সূত্রে খবর পাওয়া গেছে আর কিছুদিনের মধ্যেই মোট 2000 টি অ্যাপ্লিকেশন চালু করা হবে। যে 3939 টি অ্যাপ ব্যক্তি বিশেষে রেজিস্ট্রেশন হয়েছে সেগুলির মধ্যে 1757 টি অ্যাপ্লিকেশন সম্পূর্ণ রূপে প্রস্তুত হয়েছে। আর বাকি 2182 অ্যাপ্লিকেশনের উপর কাজ চলছে।


আপনাদের জানিয়ে দেই যে নতুন অ্যাপ গুলির মধ্যে মোট 1142 টি ব্যবসা জাতীয়, 662 টি নতুন গেমিং অ্যাপ, 1162 সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং অ্যাপ, 1062 টি ই-লার্নিং অ্যাপ, 901টি স্বাস্থ্য সম্পর্কিত অ্যাপ, ওয়াক ফ্রম হোম সম্পর্কিত 237 টি অ্যাপ্লিকেশন এবং 320 টি বিনোদন জাতীয় অ্যাপ্লিকেশন রেজিস্ট্রেশন হয়েছে ইতিমধ্যে। এছাড়াও আরও 1135 অন্যান্য অ্যাপ্লিকেশন রয়েছে। এই প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত ফল ঘোষণা করা হবে 7 আগস্ট।

Related Articles

Back to top button