দেশনতুন খবরবিশেষভারতীয় সেনা

ব্রেকিং নিউজ:-মরুভূমিতে পরিণত হতে চলেছে পাকিস্তান,পাকিস্থান যাওয়া 0.53 মিলিয়ন একর ফুট জল আটকে দিল ভারত!

কাশ্মীরে পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে জঙ্গি হামলার পর থেকে পাকিস্তানের ওপর চাপ সৃষ্টি করার কাজ শুরু করেছিল ভারত সরকার। যার দরুন পাকিস্তানের কাছে থাকা MFN এর মর্যাদা কেড়ে নিয়েছে ভারত। এছাড়া পুলওয়ামা হামলার পর থেকে পাকিস্তান থেকে আসা মালের উপর ভারত সরকার ট্যাক্স 200 গুণ বাড়িয়ে দিয়েছে যার ফলে পাকিস্তানের ব্যবসা সংকটে পড়ে গেছে।শুধু এখানেই শেষ নয় ভারতের সবজি ব্যবসায়ীরা পাকিস্তানের নিজেদের সবজি রপ্তানি করাও বন্ধ করে দিয়েছে যার ফলে পাকিস্তানের বাজার দর আকাশ ছুঁয়েছে। আর কাশ্মীরে জঙ্গি হামলা হওয়ার পর কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গড়করি বলেছিলেন যে পাকিস্তানের যাওয়া জল আটকে দেওয়া হবে এবং সেই জল ভারতেরই কাজে লাগানো হবে।

 

তবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এই কথাটি কে এতটা গুরুত্বপূর্ণ হিসাবে নেয়নি পাকিস্তানের সরকার।তবে ভারত পাকিস্তানের উপর কড়া যে কড়া হুমকি দিয়েছিল সেটাও কার্যকারী হতে লাগিয়ে দিয়েছে। আপনাদের সুবিধার্থে বলে দি, রবিবার দিন অর্থাৎ গতকালই ভারত থেকে বয়ে যাওয়া তিনটি নদীর জলকে পাকিস্থানে যাওয়ার পর কে আটকে দেওয়া হয়েছে ইতিমধ্যে। অর্জুন মেঘওয়াল যিনি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তিনি রাজস্থানের বিকানেরে এই খবর মিডিয়ার কাছে দিয়েছেন।ভারত থেকে পাকিস্তানে বয়ে যাওয়া জলের মধ্যে এখনো পর্যন্ত 0.53 মিলিয়ন স্কয়ার ফিট জল আটকে দেওয়া হয়েছে। আর পরবর্তীকালে এই জলকে ভারত সরকার দেশের কাজে ব্যবহার করবে। এদিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অর্জুন মেঘওয়াল বলেছেন আমরা যে জল আটকে দিয়েছি সেটা কে বর্তমান স্টোর করে রাখা হচ্ছে। রাজস্থান পাঞ্জাব এর জন্য এই জল ব্যবহার করা হবে ভবিষ্যতে।এই জলকে সঞ্চিত পানীয় হিসাবে এবং কৃষি জমিতে সেচ কার্যের হিসাবে ব্যবহার করা হবে।

এই দিন তিনি বলেন আমরা যে বড় পরিকল্পনা করেছিলাম পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তার প্রতি এখন অ্যাকশন নেওয়া চালু হয়ে গেছে এবং পাকিস্তানের যাওয়া জলকে বর্তমানে আটকে দেওয়া হয়েছে।

তবে সূত্র অনুসারে জানতে পারা গেছে এই সবে অ্যাকশন শুরু হয়েছে কাশ্মীরে আরও তিনটি ব্যারেজ তৈরি করার পরিকল্পনা চলছে এবং সেখানে জলকে উত্তর ভারতের রাজ্যগুলিতে ফেলার বন্দোবস্তও করছে সরকার।এছাড়া পাকিস্তানের দিকে বয়ে যাওয়া রাবি নদীর জল আটকে দেবার ব্যবস্থা নিতে চলেছে ভারত আর এর জন্য পাঞ্জাবে পাঠানকোট এ বছরের পর বছর ধরে পড়ে থাকা সাহাপুর-কান্ডির বাঁধের কাজ আবার শুরু হতে চলেছে। যার জন্য পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরেন্দ্র সিং 8 মার্চ শিল্যান্স ও করেছেন।আর এই ব্যারেজ নির্মাণে মোট 2700 কোটি টাকা খরচ হবে তবে একবার এই ব্যারাজ নির্মাণ হয়ে গেলে পাকিস্তানের যাওয়া জল ভারতের মানুষেরাই ব্যবহার করতে পারবে।

যেমন কি আগে থেকেই পাকিস্তানের মধ্যে জলের সংকট লেগেই আছে, আর যে ভাবে ভারত সরকার পাকিস্তানের প্রতি অ্যাকশন শুরু করেছে তাতে পাকিস্তান খুব শীঘ্রই মরুভূমিতে পরিণত হবে, তবে এতে আশ্চর্য হওয়ার কিছুই নেই। কারণ পাকিস্তান নিজেদের পাপের ফল ভোগ করছে।

Related Articles

Back to top button