কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে সমর্থন করায়,ভারতের পাল্টা মারে বিপাকে পড়ল মালেশিয়ার সরকার..

ভারতের আভ্যন্তরীণ বিষয়ে বহু বারই পাকিস্তানকে নাক গলাতে দেখা গেছে। তা সে কাশ্মীর ইস্যুতে হোক কিংবা অন্যান্য ইস্যুতেই হোক না কেন।পাকিস্তান বরাবরই চেষ্টা করে আসছে কীভাবে ভারতকে আন্তর্জাতিক মহলে ছোট করা যেতে পারে। তবে এইবার লক্ষ্য করা যায় ভারতের বিরুদ্ধে এই কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানের সাথে তাল মিলিয়ে মালয়েশিয়াকে যোগদান দিতে। তবে এবার ভারত তারই বদলা নিতে মালয়েশিয়া থেকে ভারতে পাম তেল রপ্তানি বন্ধ করে দিল।

তবে এই বিষয়ে সম্প্রতি মালয়েশিয়া আগে জানিয়েছিল যে ভারত পাম তেল রপ্তানি বন্ধ করতে দিলে তার বদলা নিতে তারা পারবে না। কারণ তারা বিশাল ভারতের বিরুদ্ধে পাল্টা ব্যবস্থা নিতে অক্ষম। একথা স্বয়ং তাদের দেশের প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ আগেই জানিয়েছিল। তবে গত মঙ্গলবার দিন সেই সূত্রকে ধরে আন্তর্জাতিক কৌশলগত বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছিলেন আর্থিক ও বাণিজ্যিক বাধ্যবাধকতা আছে বলে মালয়েশিয়া ভারতের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারবে না কোন প্রকার।

ভারতের নেওয়া এই কড়া পদক্ষেপের দরুন ইতিমধ্যে মালয়েশিয়া থেকে পাম তেলের রপ্তানির হার কমেছে ভারতে। তাই বেড়ে গিয়েছে পাম তেল পরিশোধন ও উৎপাদনের খরচ। তবে যেমনটা আমরা জানি বিশ্বের বৃহত্তম পাম তেল উৎপাদক দেশ হিসাবে পরিচিত দেশ হল ইন্দোনেশিয়া। আর মালেশিয়ার এই প্রতিবেশী দেশটি তাদের উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে মালয়েশিয়া তুলনায় তিনগুন তেল উৎপাদন ও রপ্তানি করতে পারে। তবে তার সাথে আরও বলে রাখি যে বিশ্বের বৃহত্তম মুসলিম দেশ হওয়া সত্ত্বেও ইন্দোনেশিয়ায় মুসলিমদের বিশ্বজুড়ে সুনাম খ্যাতি রয়েছে।

কারণ তারা অনেক সহিষ্ণু, আর তারই সাথে ইন্দোনেশিয়া সরকার ও মুসলিম নাগরিকরা সেখানকার হাজার হাজার বছর আগের ঐতিহ্য হিন্দু ও বৌদ্ধ সংস্কৃতিকে সযত্নে বাঁচিয়ে রেখেছেন। তবে অন্যদিকে মালেশিয়ার সেরকম কোন সুনাম নেই। তাছাড়া মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী সেখানকার সংখ্যালঘুদের প্রতি অসহিষ্ণু ও মৌলবাদী মানসিকতার পরিচয় দিচ্ছেন। যার ফলে এর প্রভাব ইতিমধ্যে পড়েছে বাণিজ্য ও আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে।যার দরুন ইতিমধ্যে মালয়েশিয়া সাথে দূরত্ব বজায় রাখতে শুরু করেছে ভারত সহ অন্যান্য আরও কয়েকটি দেশ।

আর এই মুহূর্তে এইসব দেশ গুলি ইন্দোনেশিয়ার সাথে এখন বন্ধুত্ব স্থাপন করছেন। মালয়েশিয়া গোটা বিশ্বে যে পরিমাণ পাম তেল বিক্রি করতো তার এক তৃতীয়াংশ কিনত ভারত তবে ভারতের আভ্যন্তরীণ বিষয়ে কাশ্মীর ইস্যুতে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ যেভাবে গত কয়েক মাস ধরে ভারত বিরোধী অবস্থান নিয়েছেন ও কাশ্মীর সহ একাধিক ইস্যুতে খোলাখুলিভাবে পাকিস্তানকে সমর্থন করছেন তার জেরে ভারত সরকার এখন মালয়েশিয়া থেকে পাম তেল কেনা বন্ধ করে ইন্দোনেশিয়া থেকে পাম তেলের আমদানি বাড়িয়ে দিয়েছে।গত আগের বছর ভারত ইন্দোনেশিয়া থেকে তিন লক্ষ টন পাম তেল কিনেছিল তবে এবার তার পরিমাণ বাড়িয়ে ছয় লক্ষ টন করে দেওয়া হয়েছে।

Related Articles

Close