দেশনতুন খবরবিশেষভারতীয় সেনা

চিন-পাক কে জবাব দিতে 70,000 কোটি ব্যয় করছে ভারত..

14 ই ফেব্রুয়ারি কাশ্মীরে জঙ্গি হানার পর থেকে যত দিন যাচ্ছে পরিস্থিতি ক্রমশ উত্তপ্ত হয়ে উঠছে।এমনকি সেই ভয়াবহ জঙ্গি হামলার পর দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভারতীয় সেনাকে নিজেদের সিদ্ধান্ত নেওয়ার ব্যাপারে পূর্ণ স্বাধীনতা দিয়ে দিয়েছেন। আর তারপর থেকেই পরিস্থিতি ক্রমশ উত্তপ্ত হয়ে পড়েছে যুদ্ধের আতঙ্কে কতর হয়ে পড়েছে পাকিস্তান। সেই জন্য তারা বারবার বৈঠক ও করছে। আর এমন সময় ভারত ও নিজের সামরিক ক্ষমতা কে বাড়াবার জন্য আরো কড়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে সমুদ্রপথে।মোট ছয়টি দেশ জার্মানি,ফ্রান্স, রাশিয়া , সুইডেন, স্পেন ও জাপানের সাথে যুক্ত হয়েছে সমুদ্র পথের মধ্যে নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে আরও শক্তিশালী করতে চলেছে ভারত।

 

একটি বড় লেনদেনের মাধ্যমে করতে চলেছে সেই ব্যবস্থা। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী জানতে পারা গেছে ভারত 70,000 কোটি ব্যায় করে 6 টি অ্যাডভান্সড স্টিলথ তৈরি হতে চলেছে। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী আরো জানতে পারা গেছে ভারত এই প্রকল্পের নাম দিয়েছে প্রজেক্ট 75। আপনাকে বলে রাখি 2007 সালে নভেম্বরে প্রথম এর প্রয়োজনীয়তার কথা বলা হয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে আর সেই সময় মনমোহন সিংয়ের নেতৃত্বে দেশে ইউপিএ সরকারের প্রশাসন ছিল। তবে খুশির ব্যাপার এটাই যে আজ দশ বছর পর এই চুক্তি বাস্তবায়িত হতে চলেছে। 2018 মে মাসে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক এই বিষয়টির অনুমোদন দিয়েছিলেন বলে জানা যায়।সূত্র অনুসারে জানতে পারা যায় ভারত সরকার গত সপ্তাহে ছয়টি সাবমেরিন প্রস্তুতকারক দেশে রিকুয়েস্ট অফ ইনফর্মেশন পাঠায়। আর এই চুক্তিকে বাস্তবায়িত করতে সেপ্টেম্বরে 15 তারিখের মধ্যে সেসব দেশের কাছ থেকে এর বিষয়ে জবাব চাওয়া হয়েছে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফ থেকে আরও জানানো হয়েছে সমগ্র প্রক্রিয়াটি হতে প্রায় দু বছর সময় লেগে যেতে পারে। আর এই প্রকল্পে সবার সম্মতি প্রায় 7 থেকে 8 বছর পরে সাবমেরিন তৈরি হতে পারে। এই প্রকল্প অনুযায়ী ভারতীয় নৌ-বাহিনী ছয়টি পরমাণু হামলা সক্ষম সাবমেরিন (এসএসএন) 4 টি পারমাণবিক জ্বালানি তে পরিচালিত সাবমেরিন (এসএসবিএন যুক্ত), 18 টি ডিজেল ইলেক্ট্রনিক সাবমেরিন পাবে বলে জানানো হয়েছে।প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী আরো জানতে পারা গেছে ভারত, চীন এবং পাকিস্তানকে কড়া জবাব দিতে এগুলি ব্যবহার করবে পরবর্তীকালে।

Related Articles

Back to top button