নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে ভারতে প্রবেশ করায় পাকিস্তানের একটি F-16 যুদ্ধবিমান কে উড়িয়ে দিল ভারতীয় বায়ুসেনা, চূড়ান্ত সতর্কর্তা জারি সীমান্তের বিমানবন্দর গুলিতে।

গতকাল ভারতীয় বায়ুসেনা বাহিনী পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখাঁ এর বালাকোটে জইশ-ই-মহম্মদ এর সবচেয়ে বড় জঙ্গি ঘাঁটি উড়িয়ে দিয়েছে। আর তারপর থেকে দু’দেশের মধ্যে চরম উত্তেজনা শুরু হয়েছে।আর কিছুক্ষণ আগেই প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী জানতে পারে যায় আরো একবার পাকিস্তানের যুদ্ধ বিমান কে উড়িয়ে দিল ভারতীয় বায়ুসেনা বাহিনী। সংবাদ মাধ্যম এ এন আই সূত্রে খবর পাকিস্তানের একটি এফ-16 যুদ্ধবিমান কে গুলি করে নামিয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনা।তথ্য অনুসারে জানতে পেরে গেছে কাশ্মীরের লাম উপত্যকায় বিমান টিকে পড়তে দেখা গিয়েছে। প্রতিরক্ষা সূত্র থেকে খবর পেয়ে জানায় যে, পাকিস্তানি বায়ুসেনা ভারতীয় সীমা লঙ্ঘন করে ভারতে ঢোকার চেষ্টা করছিল।

আই এন আই সূত্রে জানতে পারা গেছে নিয়ন্ত্রণ রেখা থেকে তিন কিলোমিটার ভিতরে পাক অধিকৃত কাশ্মীর উপত্যকায় পড়েছে এফ-সিক্সটিন বিমানটি আর বিমান ভেঙে পড়ে যাওয়ার সময় বিমান থেকে একটি প্যারাসুট কেউ নামতে দেখতে পাওয়া গেছে। তবে এখনো পর্যন্ত বিমানে চালক কেমন অবস্থায় রয়েছে সে সম্পর্কে নিশ্চিত কিছু জানতে পারা যায় নি। এই পাক যুদ্ধ বিমানটি কাশ্মিরের পুঞ্জ ও নওসেরা সেক্টরে ভারতীয় আকাশসীমা লঙ্ঘন করার চেষ্টা করছিল আর তারই পাল্টা জবাবে ভারতীয় বায়ুসেনা উত্তর দেয়। আর তিনটি এফ-সিক্সটিন বিমানের মধ্যে একটিকে গুলি করে নামায় ভারতের Su-30। আর প্রত্যাঘাতের খবর পেয়ে পাকিস্তানি যুদ্ধ বিমান গুলি পিছু হটতে বাধ্য হয়। তবে ফিরে যাওয়ার সময় গোলা বর্ষণ করে এই পাক যুদ্ধবিমান গুলি। এখনো পর্যন্ত কোনো প্রকার হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

আর অন্যদিকে উত্তেজনা সৃষ্টি হওয়ার ফলে পাক সীমান্ত লাগোয়া সব বিমানবন্দরে চূড়ান্ত সতর্কবার্তা জারি করে দেওয়া হয়েছে ইতিমধ্যেই। এমনকি জম্বু কাশ্মীর এর মধ্যে আকাশ পথ বন্ধের নির্দেশ দিয়ে দেয়া হয়েছে।সমস্ত বাণিজ্যিক বিমান গুলিকে চলাচলের নিষেধাজ্ঞা জারি করে দিয়েছে।সর্তকতা জারি করা হয়েছে দেশের বাকি বিমানবন্দর গুলিতেও।