খেলাধুলানতুন খবরবিশেষ

কড়া সিদ্ধান্ত ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির, ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ভারত এই প্লেইং ইলেভেন নিয়ে নামতে চলেছে মাঠে..

24 জানুয়ারি থেকে নিউজিল্যান্ডের সাথে ভারত পাঁচটি টি-টোয়েন্টি খেলতে চলেছে। এই সিরিজ মোটেও সহজ হবে না বলে মনে করা হচ্ছে। কারন ভারতীয় দল নিউজিল্যান্ডে এখনো পর্যন্ত কোন টি- টোয়েন্টি সিরিজ জেতেনি। প্রথম ম্যাচ খেলা হবে 24 তারিখ অকল্যান্ডের ইডেন পার্কে। পূর্বের রেকর্ড অনুযায়ী 2009 সালে ভারত 2-0 তে সিরিজ হেরে গিয়েছিল। এবং 2018 তে 2-1 ফলাফল করে সিরিজ হেরে যায়।

সিরিজ শুরু হওয়ার আগেই ভারতের বাঁহাতি ওপেনার শিখর ধাওয়ান চোটের কারণে দল থেকে ছিটকে যায়। ফলে ভারতের পক্ষে এটা একটা বড় ধাক্কা তা অস্বীকার করার কোনো কারণ নেই। এবার আমরা আলোচনা করব নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের সম্ভাব্য একাদশ কোন কোন প্লেয়ার হতে পারে – রোহিত শর্মা- শ্রীলংকার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু থেকে রোহিত শর্মা বিশ্রামে ছিলেন। কিন্তু নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে হওয়া টি-টোয়েন্টি সিরিজে রোহিত শর্মা দলে রয়েছেন। 2009 সালের নিউজিল্যান্ড সফরে রোহিত শর্মা ভারতীয় দলের ছিলেন তাই এই সফরে তার দলে থাকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তিনি তার পুরনো অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে ওখানে পারফরম্যান্স করতে পারবেন।

কেএল রাহুল(উইকেটকিপার)-অস্ট্রেলিয়া সিরিজে রিশভ পান্থ এর চোট পাওয়ার পর উইকেটের পিছনে কেএল রাহুলে দাঁড়িয়েছিলেন। তাই নিউজিল্যান্ড সফরেও কে এল রাহুল ক্রিকেট কিপিং করতে পারেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

বিরাট কোহলি(অধিনায়ক)-ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি নিউজিল্যান্ড এখনো পর্যন্ত একটিও টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেন নি। কারণ 2009 সালে যখন নিউজিল্যান্ড সফরে ভারতীয় দল গিয়েছিল তখন বিরাট কোহলির ডেবিউ হয়নি ভারতীয় দলে। আর গত বছরে তিনি বিশ্রাম নিয়েছিলেন। এবং অপরদিকে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানের অধিকারী বিরাট কোহলি। তাই এই সিরিজে তিনি যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন তা স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে।

শ্রেয়স আইয়ার-ভারতীয় দলের হয়ে তিনি বরাবর চার নম্বরে নেমে রান করেছেন তাই নিউজিল্যান্ড সফরে তাকে আরেকবার খেলার সুযোগ দেওয়া যেতে পারে। নিউজিল্যান্ডের মাঠে খেলা তার জন্য একটা চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবে। যদিও ইন্ডিয়া-এ এর হয়ে নিউজিল্যান্ডে গিয়ে আগে টি-টোয়েন্টি খেলেছেন তিনি।

মনীশ পান্ডে- কেএল রাহুলের উইকেটকিপিং করার দরুন ঋষভ পন্থকে বেঞ্চে বসে থাকতে হতে পারে। এবং তার জায়গায় মনীশ পান্ডে কে সুযোগ দেওয়া হতে পারে বলে এমনটাই মনে করা হচ্ছে। শ্রীলংকার বিরুদ্ধে হওয়া টি-টোয়েন্টি ম্যাচে 18 বলে 31 রানের দ্রুত ইনিংস খেলেন।

শিভম দুবে-নিউজিল্যান্ড সফরে ভারতীয় দলে ফিনিশার হিসেবে শিভম দুবেকে আরো একবার জায়গা দিতে পারে টিম ম্যানেজমেন্ট। এর পাশাপাশি ষষ্ঠ বলার হিসেবেও তার ভূমিকা থাকতে পারে এই ম্যাচে। নিউজিল্যান্ডের পিচ আর পরিস্থিতি কে দেখে কী বলার নিয়ে খেলার রিক্স ভারতীয় দল নেবে না বলে মনে করা হচ্ছে।

ওয়াশিংটন সুন্দর- টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে রবীন্দ্র জাদেজার জায়গায় ওয়াশিংটন সুন্দরকে প্রথম ম্যাচে সুযোগ দেওয়া হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

কুলদীপ যাদব- গতবারের সফরে ভারতীয় দলের হয়ে কুলদীপ যাদব নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যানদের যথেষ্ট চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে ছিল। তাই কুলদীপ যাদব ভারতীয় দলের হয়ে এই সিরিজে খেলবেন।

মোহাম্মদ শামি-মোহাম্মদ সামির টি-টোয়েন্টি ম্যাচে প্রত্যাবর্তন হয়েছে তা আমরা দেখেছি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজে একটি ম্যাচ খেলার পর তারপরে শ্রীলঙ্কা সিরিজে তাকে সুযোগ দেওয়া হয়নি। এবং নিউজিল্যান্ড সফরে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভুবনেশ্বর কুমার থাকছে না তাই মহম্মদ শামির ভূমিকা অনেকটা গুরত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়াবে এখানে।

জসপ্রিত বুমরাহ- জসপ্রিত বুমরাহ উইকেট না নিলেও বল করে ব্যাটসম্যানদের চাপে ফেলার জন্য এক্সপার্ট বলা যেতে পারে। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে হওয়া দ্বিতীয় ম্যাচে এবং তৃতীয় ম্যাচে সবচেয়ে কম রান দেওয়া বোলার ছিলেন তিনি। নিউজিল্যান্ড সফরে তার কাছ থেকে ভারতীয় ক্রিকেট টিম এই রকম এই আশা করবে।

নভদীপ সাইনি-শ্রীলংকার বিরুদ্ধে হওয়া টি-টোয়েন্টি সিরিজে দুরন্ত পারফর্ম এর জন্য নভদীপ সাইনিকে প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্ট হিসেবে ঘোষিত করা হয়। ওই সিরিজে তিনি কয়েকটি বল 150 কিলোমিটার প্রতি ঘন্টায় করেন। আর তাই সবদিক থেকে বিচার করে প্রথম ম্যাচে প্লেইং একাদশে এনার নাম থাকতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button