মাত্র ২০ টাকা থেকে শুরু প্রধানমন্ত্রী অনুমোদিত ইন্ডিয়ান পোস্ট পেমেন্ট ব্যাঙ্ক,এবার থেকে পোস্ট অফিসে পাবেন বিপুল লাভ।

পোস্ট অফিসের পাশাপাশি আমাদেরকে পোস্ট অফিস ব্যাঙ্কিং পরিষেবার দেওয়ার ব্যবস্থা ইতিমধ্যে করে দিয়েছে। যেখানে খুবই কম খরচের মধ্যে আপনি পোস্ট অফিসে ব্যাঙ্কিং এর সুবিধা উঠাতে পারবেন অর্থাৎ নতুন অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন। তাহলে এই পেমেন্ট ব্যাংকের সুবিধা কি করে উঠাবেন ? এবং কিভাবে বা ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলবেন ? এটি থাকবে আজকে আমাদের আলোচ্য বিষয়। এবার মাত্র কুড়ি টাকায় আপনি পোস্ট অফিসের ব্যাংকে নিজের একাউন্ট খুলতে পারবেন। প্রথম দিকে ব্যাংকে সেভিংস একাউন্টের  সুবিধা তো ছিলই , সাথে সাথে এবার যোগ হলো পেমেন্ট ব্যাংকের সুবিধা।

সাধারণ ব্যাংক একাউন্টে গ্রাহকেরা চেক বুক এর সুবিধা পেয়ে থাকে, কিন্তু এবার নতুন পোস্ট অফিস পেমেন্ট ব্যাঙ্ক যোগ হওয়া গ্রাহকরা পাবে চার শতাংশ সুদের হার। কোথায় কোথায় এই ব্যাংক খোলার শাখা রয়েছে তা দেখতে হলে  www.ippbonline.com এই ওয়েব সাইটে ভিজিট করুন। পোস্ট অফিসে পেমেন্ট ব্যাংক খোলার জন্য মাত্র ২০ টাকা এবং সেভিংস একাউন্ট খোলার জন্য ৫০০ টাকার প্রয়োজন হবে । এবং ব্যাংক কর্তৃপক্ষ থেকে জানা গেছে পেমেন্ট ব্যাংকে আপনি সর্বাধিক ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত রাখতে পারেন এবং জয়েন্ট একাউন্ট হলে ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত রাখতে পারবেন। এছাড়াও অ্যাকাউন্ট খোলার পর পেমেন্ট ব্যাংকের সর্বনিম্ন ৫০ টাকা এবং সেভিং একাউন্টে সর্বনিম্ন ৫০০ টাকা রাখা আবশ্য মুলক।

ইন্ডিয়ান পোষ্ট অফিস পেমেন্ট ব্যাংকে আপনি নির্ভয়ে টাকা রাখতে পারেন যেহেতু এটি একটি সরকারি  ব্যাংক। এছাড়াও এই ব্যাংকে সরকারি ব্যাংকের থেকে আপনি সুদের হার সর্বোচ্চ পাবেন। শুধু তাই নয় সেভিংস একাউন্টে ১০,০০০ টাকা পর্যন্ত আপনাকে কোন রকম ট্যাক্স দিতে হয় না । এছাড়াও আপনি কিছু পোষ্ট অফিস পেমেন্ট ব্যাংকের বিশেষ সুবিধাও পাবেন, যদিও অন্যান্য  ব্যাঙ্কগুলি এই সুবিধা দিয়ে থাকে ,তবুও এটি একটি  সরকারি ব্যাংক তাই সাধারন মানুষের এটিতে আস্থাও বেশি। পেমেন্ট ব্যাঙ্কের দরুন আপনাকে ডেবিট কার্ড এবং চেকবুক দেওয়া হবে এই ছাড়াও যেকোনো মুহূর্তে ভারতের যেকোনো জাইগায় এই পেমেন্ট ব্যাঙ্কটি  স্থানান্তর করতে পারেন।

ইন্ডিয়ান পোষ্ট অফিস পেমেন্ট ব্যাংকে আপনি অনলাইন এবং  অফলাইন দুইভাবেই খুলতে সক্ষম হবেন । যদিও কেওয়াইসি পদ্ধতিটি ব্যাংকের শাখায় গিয়ে আপনাকে সম্পূর্ণ করতে হবে । এছাড়াও আপনি এই ব্যাংকের দ্বারা ফিক্স ডিপোজিটও করতে পারেন। যেখানে সুদের হার আপনি তুলনামূলকভাবে বেশি পাবেন। এই পেমেন্ট ব্যাংকে আপনি ফিক্স ডিপোজিট এর সাথে সাথে আই ডি করাতে পারেন।

Related Articles

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Close