দেশনতুন খবরবিশেষ

RD গ্রাহকদের জন্য পোস্ট অফিসের তরফ থেকে বেরিয়ে এলো সুখবর, প্রিমিয়াম জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে লাগবে না কোনো বাড়তি টাকা..

আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষ পোস্ট অফিসে লেনদেন করা বা টাকা জমা রাখা অনেক বেশি সুরক্ষিত মনে করেন অন্যান্য ব্যাংকগুলোর তুলনায়। আর পোস্ট অফিসের তরফ থেকেও বার বার নতুন নতুন স্কীম আনা হয় তাদের গ্রাহকদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে। এর আগেও পোস্ট অফিসের তরফ থেকে গ্রাহকদের সুবিধার জন্য নানান ধরনের স্কিম আনা হয়েছে।শুধু তাই নয় পোস্ট অফিসের মাত্র 20 টাকা সঞ্চয়ে অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন যে কেউ, কিন্তু ব্যাংকে গ্রাহকদের জন্য এই সুবিধা দেওয়া হয় না এছাড়াও ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট খুলতে গেলে আপনাকে অনেক রকমের চার্জ দিতে হয়।

তবে এবার এই লকডাউনের পরিস্থিতিতে ভারতীয় ডাক বিভাগের তরফ থেকে বীমার প্রিমিয়াম জমা দেওয়ার সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে তার পাশাপাশি RD, PPF, এসএস অ্যাকাউন্টের গ্রাহকেরা চলতি অর্থবছরে অর্থাৎ 2019 থেকে 2020 এর এপ্রিল মাসের মধ্যে হয়ে থাকে তাহলে তারা তাদের কোন নির্ধারিত বকেয়া টাকা আগামী 30 শে জুন পর্যন্ত নিজের অ্যাকাউন্টে দিতে পারবেন। শুধু তাই নয় এর জন্য লাগবে না কোনো বাড়তি জরিমানা বা রিভাইভ্যাল ফি।

যেহেতু এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাসের সংক্রমনে দেশব্যাপী চলছে লকডাউন আর এর ফলে অনেকেই সঞ্চয়কারী তাদের ব্যাংক টাকা জমা করতে পারেনি সেহেতু এরকম এক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে অর্থ মন্ত্রকের তরফ থেকে।শুধু তাই নয় করোনার পরিস্থিতি সামাল দিতে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারকে একের পর এক নির্দেশিকা জারি করতে হয়েছে। যার ফলে বন্ধ হয়ে গেছে মানুষের স্বাভাবিক কাজকর্ম। সেই কারণে অনেকেই বিমার প্রিমিয়াম জমা দিতে পারছেন না।

তাই বর্তমান পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে এবার ডাক বিভাগের তরফ থেকে সমস্ত PIL, RPLI গ্ৰাহকদের সুবিধার্থে পোস্টাল জীবন বিমা বিভাগে কোনরকম জরিমানা ছাড়াই 2020 সালের মার্চ, এপ্রিল মাস নির্ধারিত প্রিমিয়াম জমা করার সময়সীমাটিকে আগামী 30 জুন পর্যন্ত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। প্রসঙ্গত বলে রাখি গত মার্চ থেকে 65 লক্ষ পিএলআই এবং 2.5 লক্ষ আরপিএলআই পলিসি কার্যকর রয়েছে। আর এক্ষেত্রে PIL এর সুবিধা সাধারণত সরকারি এবং আধাসরকারি সংস্থার কর্মীরা পান।

আর অন্যদিকে RPIL প্রকল্পটির সুবিধাটি গ্ৰামের সাধারণ মানুষেরা পেয়ে থাকেন।বিশেষ করে গ্ৰামীণ অঞ্চলের অল্প আয়ের মানুষ এবং মহিলারা এই সুবিধা পেয়ে থাকেন। তবে যাই হোক এ কথা বলা বাহুল্য যে ভারতীয় ডাক বিভাগের এই সিদ্ধান্তের ফলে দেশের অল্প আয়ের মানুষেরা এই সময়ে কিছুটা হলেও চাপমুক্ত হবে।

Related Articles

Back to top button