ফাইভ-জি পরিষেবার দিক থেকে আরও এক ধাপ এগোল ভারত! শহরের পর গ্রামগঞ্জে শুরু 5G টেস্টিং, স্পিড দেখে চমকে যাবেন আপনিও

এবার ভারতের গ্রামাঞ্চল এর দিকেও পরীক্ষা করে দেখা গেলো সফল 5G ট্রায়াল সম্ভব করে দেখালো এক বেসরকারি টেলিকম সংস্থা এয়ারটেল । এরিকসন এর সাথে একসাথে ব্যবস্থা ঠিক করার জন্য দিল্লি/এনসিআর এর পাশে ভাইপুর ব্রহ্মনন নামক এক গ্রামে তারা তাদের 5G নেটওয়ার্ক এর ট্রায়াল এর পরীক্ষা শুরু করে। ভারতের টেলিকম ডিপার্টমেন্ট অর্থাৎ স্পেক্ট্রাম এর ব্যবহার করে এয়ারটেল তাদের ট্রায়ালে সফল হয়। এখন তাদের সাফল্য শহর অঞ্চলের সাথে গ্রাম এর দিকেও হাই স্পিড 5G ইন্টারনেট পরিষেবা পাওয়ার স্বপ্ন দেখাচ্ছে।আসলে এনহান্সড মোবাইল ব্রডব্যান্ড অর্থাৎ ( eMBB) ও ফিক্সড ওয়্যারলেস অ্যাক্সেসের অর্থাৎ (FWA) মতো উচ্চ প্রযুক্তি ও টেকনোলজি কে ব্যবহার করে আগামীদিন গুলো তে হাই স্পিড ব্রডব্যান্ড পরিষেবা দেওয়াও যে অসম্ভব নয়, এয়ারটেল ও এরিকসন সেটি তাদের দুজনের এই যৌথ ট্রায়াল এর মধ্যে দিয়ে সেটা সবাই কে স্পষ্ট করে বুঝিয়ে দিয়েছে। এই ট্রায়াল হওয়ার থেকে উঠে আসা ফলাফল কিন্তু খুবই তাৎপর্যবহ। এই ক্ষেত্রে 3GPP-অনুবর্তী 5G FWA ডিভাইসে সর্বোচ্চ ২০০ এমবিপিএস (Mbps) স্পীডে 5G ব্যাবহার করার সুবিধা পাওয়া গিয়েছে। অন্যদিক থেকে 3GPP-অনুবর্তী 5G স্মার্টফোন এই বিষয়ে ১০০+ এমবিপিএস (Mbps) স্পিড পাওয়া গেছে।

উল্লেখ যোগ্য, এয়ারটেল এর দ্বারা করা এই 5G ট্রায়াল er জন্য দরকারি পরিকাঠামো দিয়ে সাহায্য করার জন্য এরিকসন এর দল তাদের 3GPP-অনুবর্তী 5G রেডিও স্পেকট্রাম এর প্রযুক্তি ব্যবহার করে। এফডিডি (FDD) স্পেক্ট্রাম প্রযুক্তি ছাড়াও এর পাশাপাশি ছিল ৩,৫০০ মেগাহার্টজের (MHz) মিড-ব্যান্ড স্পেক্ট্রাম ব্যাবহৃত করে এই পুরো ট্রায়াল এর প্রক্রিয়া সম্ভব হয়েছে। ভবিষ্যত এর দিনে ভারতের মতো এতো বড়ো দেশের সব কোনায় কোনায় উন্নত মানের 5G ইন্টারনেট পরিষেবা পৌঁছে দিতে এয়ারটেল যে সম্পূর্ণভাবে তৈরী, সেটি ট্রায়াল এর ফলাফল প্রমাণ করে দিয়েছে।

এই ট্রায়াল সম্পর্কে এয়ারটেল কোম্পানির সিটিও (CTO) রণদীপ সিংহ বলেন, “দেশে প্রথম 5G নেটওয়ার্ক এবং 5G ক্লাউড গেমিং অভিজ্ঞতা প্রদানের পর প্রান্তিক অঞ্চলে সফলভাবে 5G ট্রায়াল আয়োজন করতে পেরে আমরা গর্বিত।….5G প্রযুক্তি নিয়ে আসার সম্মুখসারিতে উপস্থিত থেকে আগামীদিনেও আমরা Ericsson -কে সঙ্গে নিয়ে কাজ করবো।

Advertisements

অন্যদিক থেকে এরিকসন গ্রুপ এর পক্ষ থেকে এই বিষয়ে মন্তব্য করার সময় ভারতের ডিজিটাল ইন্ডিয়া মিশন ও আত্মনির্ভর ভারত মিশন এর কথা স্মরণ করিয়ে দিয়েছে সবাই কে। এছাড়া ও হাই স্পিড 5G ইন্টারনেট পরিষেবা ভারতের সামাজিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রেও যে উন্নতি ঘটাবে সেই নিয়েও কোন সংশয় নেই। কিন্তু পরিবেশ প্রেমীদের মধ্যে এই বিষয়ে একটি দুশ্চিন্তা বেড়েই চলেছে।

Advertisements