বীরচক্র সম্মানে সম্মানিত হতে চলেছে ভারতের উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান, সাথে অন্য 5 পাইলটকে বিশেষ সম্মানে..

উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান নাম এই প্রথমবার শুনছেন এমন ভারতবাসী হয়তো নেই বললেই চলে। পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গি হামলার পর ভারত ও পাকিস্তানের সংঘর্ষের সময় পাকিস্তানী F-16 ফাইটার বিমান কে মিরাজ 2000 নিয়ে ধাওয়া করে গুলি চালিয়ে নিচে নামাতে সমর্থক হন তিনি। কিন্তু তিনি পাকিস্তানি সেনাদের হাতে বন্দি হয়ে যান এই ঘটনার পর। পরে অবশ্য আন্তর্জাতিক চাপে প্রায় 60 ঘন্টার মধ্যেই উইং কমান্ডার কে ছাড়তে বাধ্য হয় পাকিস্তান।

তিনি বন্দি থাকাকালীন হাজার অত্যাচারের পরেও প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত কোন তথ্য দেয়নি উইং কমান্ডার।
তার এই অসীম সাহসের জন্য বীর চক্র সম্মানে সম্মানিত করা হচ্ছে উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে। অভিনন্দন ছাড়াও যারা যারা বালাকোটের এয়ারস্ট্রাইকে অংশগ্রহণ করেছিলেন তাদের প্রত্যেককে বায়ুসেনা পদক দিয়ে সম্মানিত করবে। পরমবীর চক্র এবং মহাবীর চক্রের পর এটি হলো ভারতের তৃতীয় সম্মান।

খবর সূত্রে জানা যায় 14 ই আগস্ট বীরত্ব সম্মানে তালিকা প্রকাশ করবেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। এরপর 15 ই আগস্ট আনুষ্ঠানিকভাবে উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান এবং আরো বাকিদের সম্মানিত করা হবে। ভারতের ইতিহাসে অভিনন্দন এই হলেন প্রথম ফাইটার পাইলট যিনি F-16 কে গুলিবিদ্ধ করেছিলেন। সেই ঘটনার পর বায়ু সেনা প্রধান অভিনন্দন বর্তমান কে কিছুদিন রেস্ট নিতে বলেছেন। কিন্তু তিনি নিজের কাজে এতটাই মনোযোগী যে তিনি বেশিদিন ছুটিতে থাকতে পারেননি। ব্যাঙ্গালোর ইনস্টিটিউট অফ এরোস্পেস মেডিসিনের তার রিপোর্টা না আসা পর্যন্ত আকাশে ওড়ার ছাড়পত্র পাচ্ছেন না অভিনন্দন। আপাতত তিনি এখন প্রশাসনিক বিভাগের দায়িত্ব পালন করছেন। তবে মনে করা হচ্ছে আর কিছুদিনের মধ্যেই পুরনো ছন্দে ফিরে আসবেন তিনি। প্রসঙ্গত অভিনন্দন কে সম্মান জানানোর জন্য বায়ুসেনা একটি ভিডিও গেম লঞ্চ করেছে। গেমটির নাম হলো ‘ইন্ডিয়ান এয়ার ফোর্স – এ কাট অ্যাবাভ’।

অনলাইনে গেমটিতে অভিনন্দন বর্তমানের মত দেখতে একজনকে ম্যাসকট বানানো হয়েছে। এবার রিয়েল লাইফেও সম্মান পেতে চলেছেন ভারতীয় বায়ুসেনার এই সাহসী উইং কমান্ডার।