পরিবর্তন হচ্ছে ভারতের ছবি! রাশিয়ার পূর্ব প্রান্তের উন্নতিতে এবার 7 হাজার কোটি টাকার ঋণ দিতে চলেছে ভারত সরকার

দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা খুব একটা ভালো না হলেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি রাশিয়াকে সাত হাজার কোটি টাকা ঋণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন। পূর্বাঞ্চলের অর্থনৈতিক ফোরামে এদিন প্রধান অতিথি ছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর এই দিনেই তিনি রাশিয়াকে 7 হাজার কোটি টাকা ঋণ নেওয়ার ঘোষণা করেন। এবং নরেন্দ্র মোদী বলেন, “অ্যাক্ট ফার ইস্ট নিতি এখানে সূচনা করা হল।” এশিয়ার পূর্বপ্রান্ত অর্থাৎ পূর্ব সাইবেরিয়ার বৈকাল লেক থেকে প্রশান্ত মহাসাগর পর্যন্ত এলাকা।

রাশিয়ার সীমান্তে রয়েছে মঙ্গোলিয়া, চিন ও কোরিয়া। আর জলের ওপরে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং জাপান। ফলে কূটনৈতিক দিক থেকে বিচার করলে এই অঞ্চলটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল। প্রধানমন্ত্রী বলেন,”ভ্লাডিভসটকে একমাএ ভারতের দূতাবাস রয়েছে। এমনকি সোভিয়েতের সময়েও রাশিয়ার একাংশে বিদেশিদের নিষিদ্ধ ছিল কিন্তু ভারতের জন্য এটা কোনদিন নিষিদ্ধ ছিল না।”রাশিয়ার পূর্ব প্রান্তে তেল-গ্যাসের বিনিয়োগের সুযোগ পাওয়া যেতে পারে বলে মনে করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

তিনি বলেন,” ওই এলাকাটি সুফল পেতে পারে ভারত। ” রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের প্রশংসা করে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী বলেন,” রাশিয়ার জন্য একটি বিশেষ লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছেন প্রেসিডেন্ট পুতিন। এবং বলেন, বরফে ঢাকা রাশিয়াকে ধীরে ধীরে ফুলের দেশে পরিণত করছেন তিনি।” এদিন বিদেশের মাটিতে ভারতের অর্থনৈতিক লোকের কথা আরো একবার মনে করিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রাশিয়া দু’দিনের সফর সেরে ফেলার পর ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। টুইটারে তিনি লিখেছেন,” ধন্যবাদ রাশিয়া।

আমার এই সফর সফল হয়েছে। বৈঠকে নেওয়া সিদ্ধান্তগুলি ফলে ভারত ও রাশিয়ার সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ঠ হবে।প্রেসিডেন্ট পুতিন এবং রাশিয়ার সরকার ও সাধারণ মানুষদের আত্মীয়তায় আমি আপ্লুত।” খবর পাওয়া গেছে পুতিনের সঙ্গে নরেন্দ্র মোদীর বৈঠকের সময় কাশ্মীর নিয়েও আলোচনা হয়েছে। ভারতের বর্তমান অবস্থান সম্পর্কে পুতিনকে বুঝিয়ে বলেছেন তিনি। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন যে রাশিয়া ও মধ্যে যা ঘটে যাক না কেন ভারত-রুশ সম্পর্কের ওপর কোনো প্রভাব পড়বে না।

 

Related Articles

Close