Categories
দেশ নতুন খবর বিশেষ

চীনের বিরুদ্ধে সম্পূর্ণ তৈরি ভারত,পাশে রয়েছে জাপান -আমেরিকা-অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ কোরিয়ার সমর্থন

দেশজুড়ে মরণ ভাইরাস COVID-19 ছড়ানোর পর থেকে চীনের উপর একাধিক দেশ নজরদারি রাখতে শুরু করেছে তাদের মধ্যে সবার প্রথমে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাম। আর এবার মার্কিন সেক্রেটারি অফ স্টেট মাইক পম্পেও জানিয়ে দিলেন যে, চীনের কর্মকাণ্ড মোটর সমর্থনযোগ্য নয়। যার দরুণ গোটা বিশ্ব এখন চীনের বিরুদ্ধে একত্রিত হতে শুরু করেছে যাদের মধ্যে নাম রয়েছে ভারত অস্ট্রেলিয়া, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, ভারত এবং আমেরিকার মতো দেশের এরা সকলেই চীনের বিরোধীতাতে সরব হয়েছে।

 

আর এই মুহূর্তে সীমান্ত বিবাদ নিয়ে ভারতের সাথে চীনের যে ঝামেলা চলছে তাতে আমরা ভারতের পাশে রয়েছি‌ বলে তিনি আশ্বাস দেন। গত মঙ্গলবার দিনে এই নিয়ে ফক্স নিউজে একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন মাইক পম্পে যেখানে তিনি জানান আমি মনে করি চীনের কমিউনিস্ট পার্টি কখনোই তাদের সততা সাম্যতা এবং সততার পরীক্ষা দিতে প্রস্তুত নয় যে কারণে তাদের কর্মকাণ্ডের উপর এখন একাধিক দেশ বিশ্বাস করতে চাইছে না, ধীরে ধীরে সকল দেশ তাদের উপর থেকে বিশ্বাস হারাচ্ছে গোটা বিশ্ব এখন একত্রিত হতে শুরু করেছে চীনের বিরুদ্ধে।

তাছাড়া তিনি বলেন ভারতে চীনা সেনাবাহিনী যেভাবে অগ্রাসন নজরে আসছে তা দেখে এক প্রকার বোঝা যাচ্ছে সীমান্ত নিয়ে চীনের যে মনোভাব রয়েছে। শুধু তাই নয় এই দিন তিনি NATO এর মত একটি সংগঠন প্রতিষ্ঠার কথাও জানান যেখানে সদস্য হিসাবে ভারত-জাপান অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়ার নাম তুলে ধরেন।পাশাপাশি এদিন নিউজ এজেন্সি পিটিআই জানায় দক্ষিণ চীন সাগরে যুদ্ধবিমান পাঠানো নিয়ে ভারতের প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান ভারত অস্ট্রেলিয়া জাপান বা দক্ষিণ কোরিয়া আমাদের বন্ধু,আর এই মুহূর্তে চীন তাদের উপর প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে হামলা চালাচ্ছে।

তবে এবার এসব দেশের উপর বিপদের আশঙ্কা যত বাড়বে, তত তাদের সঙ্গে আমেরিকার সহযোগিতাও বাড়বে। যদিও সীমান্ত বিবাদ নিয়ে ভারতের সাথে চীনের যে সমস্যা তৈরি হয়েছে সেটি শান্তিপূর্ণভাবে সমস্যার সমাধান ঘটবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন মাইক পম্পে। তিনি বলেন চীনের কমিউনিস্ট পার্টি তাদের প্রতিবেশী দেশগুলির উপর দাদাগিরি চালাতে শুরু করেছে যাদের মধ্যে নাম রয়েছে ভারত ও তাইওয়ানের। আমেরিকান ইন্টেলিজেন্সের খবর অনুযায়ী, চীনা সেনাবাহিনী প্যাংগং এবং তার আশেপাশের অঞ্চল গুলিতে নিজেকে আরও শক্তিশালী করতে চাইছে।

আর এটির জন্য তারা নানান পরিকল্পনা চালেছে, যদিও ভারতীয় সেনাবাহিনী অত্যন্ত তৎপর যার ফলে তাদের সেই চেষ্টা বারবার ভস্তে যাচ্ছে, প্রসঙ্গত 29 ও 30 অগাস্ট রাতে প্যাংগং লেকের দক্ষিণ দিক চীনা সেনার দখলের উদ্দেশ্য ব্যর্থ করে ভারতীয় সেনাবাহিনী৷ তবে এক্ষেত্রে চীনের অভিযোগ যে ভারতীয় সেনা তাদের মাটিতে অনুপ্রবেশ চালিয়েছে। অন্যদিকে এর পাশাপাশি ভারতে যে চীনা অ্যাপ PUBG ব্যান করা হয়েছে সেটির নিয়েও ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এইভাবে অ্যাপের মাধ্যমে কোন দেশের নিরাপত্তা বিষয়ক একাধিক তথ্যের ওপর নজরদারি রাখা ঘোর বিরোধী বলে মনে করে আমেরিকা।