আরো বিপদ বাড়লো পাকিস্তানের! এবার POK অপারেশনে ভারত মাঠে নামিয়ে দিলো বিধ্বংসী রকেট লঞ্চার..

ভারতের পুলওয়ামায় সিআরপিএফের কনভয়ে পাক জঙ্গি হামলার পর থেকে ভারত ও পাকিস্তানের সম্পর্কের মধ্যে ফাটল ধরেছিল। আর তারপরই সারা দেশ জুড়ে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য আওয়াজ উঠতে শুরু করে। যার কড়া জবাবে ভারত পরে পাক অধিকৃত জঙ্গি ঘাঁটি গুলিতে এয়ার স্ট্রাইক করেছিল। তবে পরবর্তীকালে ভারত সরকার আবার যখন কাশ্মীর থেকে অনুচ্ছেদ 370 বাতিল করে তখন থেকে পাকিস্তান আবার ভারতের পেছনে উঠেপড়ে লাগে।

তবে আবারো পাকিস্তান এখন নিজের পায়ে নিজেই কুড়ুল মারার মতো কাজ করছে। যেমন কী আমরা জানি ভারত আর্থিক ও সামরিক দুই দিক থেকে পাকিস্তানের থেকে অনেক গুণ বেশি শক্তিশালী হয়ে রয়েছে। এসব জেনেও পাকসেনা ভারতে বারবার অশান্তি ফেলানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে।আর কয়েকদিন আগে থেকেই ভারত ও পাকিস্তান সীমানায় উত্তেজনা ছিল চরমে। পাকিস্তানে সেনা বারবার সংঘর্ষ চুক্তি উলঙ্ঘন করে ভারতীয় সেনার ওপর গুলি চালিয়ে যাচ্ছে। আর প্রাপ্ত খবর থেকে এটাও জানতে পারা গেছে এর ফলে ভারতের দুই জন সেনা শহীদ ও হয়েছেন।

একই সাথে পাকিস্তান বারবার চেষ্টা করছে কীভাবে ভারতের মধ্যে তাদের আতংবাদি দেরকে প্রবেশ করানো যেতে পারে।এত কিছু হওয়ার পর যে ভারতীয় সেনা চুপ করে থাকার পাত্র সেটা নয় এবার ভারতীয় সেনারাও অ্যাকশন মুডে চলে এসেছে। ইতিমধ্যে ভারতীয় সেনারা POK তে অপারেশন শুরু করে দিয়েছে।এখনো পর্যন্ত পাওয়া খবর থেকে এটা জানতে পারা গেছে ভারতের সেনার দ্বারা চালানো এই অপারেশনের ফলে এখনো অব্দি পাকিস্তানের 35 জন আতংবাদি ও 7 জন পাকসেনাকে শেষ করা সম্ভব হয়েছে।

যদিও কিছু সূত্রের দাবি ভারতের চালানো এই অপারেশনের ফলে এখনো পর্যন্ত পাকিস্তানের নিহতের সংখ্যা 100 জনেরও বেশি পেরিয়ে গেছে।সাথে সাথে এও দাবি করা হয়েছে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এবার ভারতীয় সেনারা ধনুশ আর্টিলারি গান ছাড়াও পিনাকা রকেট লঞ্চার নামিয়ে দিয়েছে। তবে যারা জানেন না এই পিনাকা রকেট লঞ্চার কি তাদের বলে রাখি এটা একটা মাল্টিপেল রকেট লঞ্চার। ভগবান শিবের ধনুষের নাম ছিল পিনাকা, সেই অর্থে এই মিসাইলটির ও নাম পিনাকা দেওয়া হয়েছে। এক একটা ট্রাকে 12 টি করে রকেট থাকে যেগুলিকে এক দিশা বা বহু দিশা যেমন খুশি ইচ্ছা প্রেরণ করা যায় এই অস্ত্রটি কে। ফলে একই টার্গেটে একসাথে ও ভিন্ন ভিন্ন টার্গেটেও আক্রমন করতে পারা যায় এই পিনাকা রকেট মিসাইলের সাহায্যে।

আর এর ফলে এটা বলা বাহুল্য যে এই মিসাইল যদি একবার মাঠে নামিয়ে দেওয়া হয় তার অর্থ হলো পাকিস্তান সরাসরি বিপদের মুখে পড়তে চলেছে।এর আগে এমনিতেই পাকিস্তানের মিডিয়া ভারতের স্ট্রাইক নিয়ে কেঁপে উঠেছিল।পাক মিডিয়ায় অভিযোগ তুলেছে যে ভারত ক্লাষ্টার বোমা ব্যাবহার করেছে। এছাড়াও পাকিস্তান সরকার তাঁদের দেশে থাকা ভারতের হাইকমিশনারকে জরুরি তলব করেছে। ভারতীয় সেনার আক্রমনে পাকিস্তান অস্থির হয়ে পড়েছে। সম্ভবত সেই কারণেই হাইকমিশনারকে জরুরি তলব করেছে পাকিস্তান।

Related Articles

Close