ভুল প্যান কার্ডের নম্বর দিলে আয়কর বিভাগ থেকে করা হতে পারে 10 হাজার টাকা জরিমানা…

সময় থাকতেই সাবধান হয়ে যান! কারণ এবার থেকে আপনি কোন ফর্ম পূরণ করছেন সেখানে যদি আপনি আপনার প্যান কার্ডের নম্বর দেবার জায়গায় ভুল নম্বর প্রদান করে দেন তাহলে সে ক্ষেত্রে আপনাকে 10 হাজার টাকা জরিমানার সম্মুখীন হতে হবে। 1961 সালের আয়কর আইনের 272 বি ধারা অনুসারে যদি কেউ ভুল প্যান কার্ড নম্বর দেয় তবে আয়কর বিভাগ তার ওপর 10 হাজার টাকা জরিমানা জারি করতে পারে।

আপনি যখন আপনার আয়কর রিটার্ন অর্থাৎ আইটিআর ফাইল করেছেন বা যেখানে নির্দিষ্ট ক্ষেত্রে আর্থিক লেনদেনের জন্য প্যান কার্ডের নম্বর টি বাধ্যতামূলক সেসব ক্ষেত্রে এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে। আয়কর বিভাগে কয়েকটি এই রকম মামলা একটি তালিকা রয়েছে যেখানে প্যান উদ্ধৃত করা বাধ্যতামূলক। যাদের মধ্যে অন্যতম রয়েছে ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট খোলার ক্ষেত্রে, মোটরগাড়ির কেনাবেচা করা কিংবা 50 হাজার টাকার বেশি মিউচুয়াল ফান্ড, শেয়ার মার্কেট, ডিবেঞ্চার, বন্ড ইত্যাদি কেনার জন্য।

এর বাইরে লেনদেনের ক্ষেত্রে যেখানে প্যান আধার কার্ডের নম্বর উদ্ধৃত করা বাধ্যতামূলক সেখানে জরিমানাও হতে পারে,যদি প্যান কার্ড না থাকে বা আপনারা আয়ও কর যোগ্য থেকে নিচে থাকে তবে ফর্ম 60 ডিক্লারেশন পূরণ করা উচিত। আর এ কথা আপনিও লক্ষ্য করে থাকবেন যে ব্যাঙ্কগুলি আপনাকে প্রায়ই আপনার প্যান কার্ডের ফটোকপি দিতে বলে। আর এটির প্রধান কারণ হল এক্ষেত্রে আপনি অজান্তে ফর্মটিতে যদি ভুল নম্বর দিয়ে থাকেন তাহলে ব্যাংক সর্বদা একটি ফটোকপি দিয়ে যাচাই করতে পারে।

আর প্যান কার্ড একবার বরাদ্দ হয়ে গেলে, এটির জন্য আর আবেদন করতে পারবে না কারণ প্যান কার্ডের মালিকের জন্য নম্বরটি আজীবন বৈধ থাকে এবং আপনি ঠিকানা পরিবর্তন করলেও তা পরিবর্তন হয় না। আর এক্ষেত্রে যদি আপনার প্যান কার্ডের নম্বর মনে না থাকে তাহলে তার বদল যোগ্য হিসাবে এখন আপনি আধার কার্ডের নম্বর দিতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে প্যান এর পরিবর্তে ভুল আধার নম্বর দেওয়ার ক্ষেত্রেও 10,000 টাকা জরিমানার বিধিটি প্রযোজ্য করা হবে।

আর একটা কথা অবশ্যই সব সময় মাথায় রাখবেন আপনি যদি দুটি প্যান কার্ডের সাথে কোনদিন ধরা পড়েন তাহলে আয়কর আইন অনুযায়ী 1961 এর ধারা 272 বি এর অধীনে আপনাকে 10 হাজার টাকা জরিমানা দিতে বলা হতে পারে। তবে এক্ষেত্রে আপনার কাছে প্যান কার্ডের একাধিক কপি থাকতে পারে।আর এক্ষেত্রে যদি আপনি দুটি প্যান কার্ডের কপি পেয়ে থাকেন তাহলে সবচেয়ে ভালো হবে ওই দুটি প্যান কার্ড এর মধ্যে যেকোনো একটি কে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সারেন্ডার করে দিন। পাশাপাশি উল্লেখ্য যে কোন কোনও প্যান নম্বর যা আধার কার্ডের সাথে যুক্ত নয় সম্ভবত 31 শে ডিসেম্বরের পরে থেকে আয়কর বিভাগ এর কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে তা অবৈধ বলে ঘোষণা করা হবে।

Related Articles

Close