সারদা মামলায় কলকাতা কমিশনার রাজীব কুমার এর বিরুদ্ধে ভয়ঙ্কর তথ্য ফাঁস সিবিআই এর রিপোর্টে…

ফের আরেকবার রাজীব কুমার অস্বস্তির মুখে পড়লেন। রাজিব কুমারের বিরুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি তথ্য সিবিআই এর হাতে উঠে এসেছে। সেই রিপোর্ট সিবিআই মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের জমা দিয়েছে বলে জানা যায়। এই রিপোর্ট দেখে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি জানিয়েছেন, রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে ঘোরতর প্রমাণ রয়েছে এতে। রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলার শুনানি ছিল মঙ্গলবার দিন। এদিন শুনানিতে একটি খামে ভরা রিপোর্টে কলকাতার এই প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার এর বিরুদ্ধে নানান তথ্য জমা দিয়েছে সিবিআই। খবর সূত্রে জানা গিয়েছে, মোট ছয়টি পাতা জুড়ে এই রিপোর্ট দিয়েছে সিবিআই।

সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ শুনানির দিন সিবিআইকে বলেন, এত গুরুত্বপূর্ণ অভিযোগ দেখে সুপ্রিম কোর্ট কখনো চুপ করে বসে থাকবে না। তিনি এর পরিপ্রেক্ষিতে রাজিব কুমারের বিরুদ্ধে কী কী ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে তার জন্য একটি আবেদনপত্র জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছে সিবিআই-কে। শীর্ষ আদালতের জানিয়েছেন যে রাজিব কুমারের তরফ থেকে কোনও বক্তব্য না শুনে শীর্ষ আদালত এখনই কোনও পদক্ষেপ নেবে না। প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে আরো তিন বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে এ মামলার শুনানি চলছে। প্রধান বিচারপতি ছাড়াও বিচারপতি হিসেবে দীপক গুপ্তা এবং সঞ্জীব খান্নাও রয়েছে। সারদা কেলেঙ্কারিতে রাজীব কুমারের নাম উঠে আসে । তার বিরুদ্ধে তথ্য লোপাট করার অভিযোগ ওঠে। এই অভিযোগের ভিত্তিতে তার বাড়িতে সিবিআই অফিসাররা গিয়ে তদন্ত করতে যায়। সিবিআই এর তদন্তের পথে বাধা দেয় কলকাতা পুলিশ। এরপর ধর্মতলায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ধরনায় বসেন। এর আগের বার সিবিআই অভিযোগ করে, ফোন কলের লিস্ট থেকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ নাম মুছে ফেলেছিলেন তিনি।

আর এতেই সন্দেহ বেড়ে যায় সিবিআই এর। এরপর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের অনুমতি নিয়ে সিবিআই মুছে ফেলা কল লিস্ট গুলিকে সার্ভিস প্রোভাইডার এর কাছে গিয়ে পুনরুদ্ধার করে। এরপর সুপ্রিম কোর্টের শুনানিতে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ এই অভিযোগের স্বপক্ষে প্রমান দিতে বলেন। শিলং এ গিয়ে সিবিআই রাজীব কুমার কে জেরাও করে। শিলং এ রাজীব কুমার কে জেরা করার সময় তার সাথে সারদা কাণ্ডের আরেক অভিযুক্ত কুণাল ঘোষকেও ডাকা হয়েছিল। সেখানে যে প্রশ্ন উত্তরের পালা চলছিল সেই ভিত্তিতে মঙ্গলবারে শুনানিতে রিপোর্ট পেশ করেছিল সিবিআই। সিবিআই রাজীব কুমার কে টানা পাঁচদিন ধরে প্রায় 36 ঘণ্টার মতো জেরা করেছিল। তার উপর অভিযোগ ওঠার কারণে পদ বদল হয়েছে রাজীব কুমারের। রাজীব কুমার কে কলকাতার নগরপালের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। এর বদলে এডিজি সিআইডি পদে রাজীব কুমার কে বসানো হয়েছে।

এই বিষয়ে আরও নতুন আপডেটের জন্য চোখ রাখুন আমাদের ফেসবুক পেজ দ্যা ইন্ডিয়া নিউজে।

keya Mondal

Keya Mondal, follower of truth, student of politics and governance.Graduted in Sanskrit . Email: keyamondal.india@gmail.com

Related Articles

Close