নতুন খবরবিশেষ

অবশেষে ভিক্ষার ঝুলি নিয়ে বিদেশে পৌঁছালেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

পাকিস্থান এখন ঋণে ডুবে আছে এই কথা আমরা অনেকেই জানি। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ত্রাণ প্যাকেজের শর্তে চর্চা করতে রবিবার দুবাইতে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের প্রধান ক্রিষ্ট্রিন লাগার্ড এর সাথে সাক্ষাৎকার করেছেন। ইমরান ওয়ার্ল্ড গভারমেন্ট সামিটের সপ্তম সংস্করণে অংশ নেওয়ার জন্য সংযুক্ত আরব আমিরশাহী এর একদিনের সফরে গেছেন। পাকিস্তানের সূচনা মন্ত্রী ফাহাদ চৌধুরী দ্যা ডন পত্রিকা কে জানাই, তিনি ইমরান সম্মেলনে এর পরে দুবাইতে ক্রিস্টিন লাগার্ড এর সাথে দেখা করার কথা। এই পত্রিকার রিপোর্টে এক আধিকারিক এর সূত্র থেকে জানা যায় যে, বহু বার আবেদন করার পর আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল পাকিস্তানের উপর একটু হলেও সুর নরম করেছে।

পাকিস্তানের বর্তমানের অর্থব্যবস্থাকে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের তুলে ধরার জন্য কিছু পদক্ষেপ নেবেন বলে জানিয়েছিলেন। তার চাই যে পাকিস্তান আগামী 3-4 বছরের মধ্যে যেন 1600-2000 বিলিয়ন ডলার যোগাড় করতে পারে। এই কথাবার্তাতে পাকিস্তানের খরচ নিয়ম সমস্যা হয়েছে। আপনারা হয়তো জানেন না, কিছুদিন আগে পাকিস্তান হজ সাবসিডি খতম করার সিদ্ধান্ত নিয়ে নিয়েছে। এর ফলে পাক সরকারের 450 কোটি টাকা সাশ্রয় হবে বলে জানিয়েছেন পাক সরকার। পাকিস্তানের মন্ত্রী নুরুল হোক কাদরি জানান, হজ সাবসিডি খতম কিছুদিন আগেই ইসলামাবাদে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের নেতৃত্বে চলা মন্ত্রী মন্ডপের বৈঠকে খতম করার  সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে এই বৈঠকে ইসলামে সাবসিডি যুক্ত হজের অনুমতি দেওয়া হয়। এই অনুমতি দেওয়া নিয়ে অনেক বাদ বিতর্ক হয়েছে। প্রাক্তন পাক সরকার হজ যাত্রীদের জন্য 42 হাজার সাবসিডি দিত।

আর এই সাবসিটি দেওয়ার ফলে পাক সরকারের রাজকোষের 450  কোটি টাকার অতিরিক্ত বোঝা চেপে যায়। এত বড় আর্থিক বোঝা চেপে যাওয়ার ফলে দেশের এখন আর্থিক অবস্থা খুবই খারাপ। এমনকি বেশকিছু রিপোর্টে আগামী কয়েক মাস ধরে পাকিস্তান দেউলিয়া হতে চলেছে সেই খবর বলা হয়েছে। আর এই দেউলিয়া হওয়া থেকে বাঁচাতে পাকিস্তান সরকার হজ সাবসিডি বন্ধ করে প্রতিবছর 450 কোটি টাকা বাঁচানোর চেষ্টা করছে।আরো এরকম নতুন নতুন খবরের আপডেট এর জন্য চোখ রাখুন আমাদের ফেসবুক পেজ TheIndiaNews এ ।

Related Articles

Back to top button