বেড়ে গেল ইমরান খানের সমস্যা! পাকিস্তানের কবজা করা অংশের মানুষ বললো- আমরা যোগ হতে চাই ভারতে।

জম্মু কাশ্মীর থেকে আর্টিকেল 370 তুলে নেওয়ার পর বর্তমানে এখন গিলগিট বলিস্তানের লোকেরা প্রতিবাদী হয়ে উঠেছে। গিলগিটের লোকেদের বক্তব্য তাদের ভারতীয় সংবিধানের উপর পুরো ভরসা রয়েছে এবং তারা ভারতীয় সংবিধানের সাথে জুড়তে চায়।গিলগিটদের এই ধরনের স্পষ্ট ভাবে কথা বলার ফলে পাকিস্তান সরকারকে সমস্যায় ফেলে দিয়েছে। কয়েক দিন আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে ছিল এক কাশ্মীরি মেয়ের ভিডিও।

যেখানে মেয়েটি বলেছিল যে মোদি সরকার কাশ্মীর থেকে 370 ধারা তুলে নেওয়ার ফলে কাশ্মীরের ছেলে মেয়েদের জীবন রক্ষা পেয়েছে। এর জন্য মোদির সরকারকে ওই মেয়েটি অনেক ধন্যবাদ জানিয়েছেন। ভারতীয় সংসদের চলার চর্চাকে গিলগিট এর লোকেরা খুবই গম্ভীরতার সঙ্গে দেখছেন। তারা অমিত শাহের প্রত্যেকটি কথা খুব মনোযোগ দিয়ে শুনছেন এবং এই নিয়ে তারা তাদের প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করছে।

গিলগিটদের এই অধিকারের লড়াই লড়ছে একজন নেতা এচ.সেরিং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এর থেকে দাবি করেন তারা ভারতের সাথে জুড়ে যেতে চাই এবং ভারতীয় সংবিধানের অন্তর্গত হতে চাই সেংগে এচ সেরিং বলেন,”স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেন যে POK হল জম্মু-কাশ্মীরের অভিন্ন অংশ এবং আমরা এটা মানছি যে গিলগিট ভারতের অভিন্ন অংশ। আমরা লাদাখের সম্প্রসারণ এবং ভারতীয় সংবিধানের মধ্যে নিজেদের অন্তর্গত করার দাবি জানাচ্ছি।”সেরিং বলেন, ” সেখানে সাংবিধানিক ইউনিটের আমরা নিজেদের প্রতিনিধিত্ব চাইছি।  307 ধারা তুলে নেওয়ার পর যেটা কেন্দ্রশাসিত প্রদেশ হয়েছে সেখানে রেজাল্ট শিটে গিলগিট বলিস্তানের সিট হওয়া উচিত। আমরা মনে করছি যে রাজ্যসভা ও লোকসভায় আমাদের প্রতিনিধিত্ব হওয়া উচিত।

কারণ এবার থেকে আমরা ভারতের অভিন্ন অংশ।প্রসঙ্গত লোকসভায় চর্চার সময় আর্টিকেল 370 ধারা তুলে নেওয়ার বিরুদ্ধে যাওয়া বিরোধী নেতারা POK এর বিষয় নিয়ে তুলেছিল যার উত্তরে অমিত শাহ বলেন, ” জম্মু-কাশ্মীরের কথা যদি বলা হয় তার মধ্যে POK ও আসে। POK কে ফেরত পাওয়ার জন্য আমরা নিজের প্রাণও দিতে রাজি আছি।

Related Articles

Close