করোনার আবহের মধ্যেই বাংলায় তৈরি হয়ে গেল ভারতের সবচেয়ে গভীরতম মেট্রো স্টেশন, দেখুন ছবি..

দেশজুড়ে এই মুহূর্তে চলছে করোনা দাপট আর এই করোনা সংক্রমনের মধ্যেই একাধিক করোনার বিধি- নিষেধ মেনেই সম্পন্ন করা হল বাংলার ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো হাওড়া স্টেশন এর কাজ। লকডাউনের পাশাপাশি একাধিক নিয়ম বিধি নিষেধ মেনে সম্পন্ন করা হয়েছে এই মেট্রো স্টেশনের প্রস্তুতির কাজ। বলে রাখি এই মেট্রো স্টেশনের রয়েছে একাধিক অত্যাধুনিক পদ্ধতি অনেকেই হয়তো এই ঝা চকচকে মেট্রো স্টেশন দেখলে অবাক হয়ে যেতে পারেন।

আপনাদের সুবিধার্থে বলে রাখি এটি হল দেশের গভীরতম একটি মেট্রো স্টেশনের মধ্যে একটি যেটি মাটি থেকে প্রায় 30 মিটার নিচে তৈরি করা হয়েছে। শুধু তাই নয় হাওড়ার এই ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো স্টেশনটি গভীরতার দিক থেকে দিল্লির মেট্রোর হউজকেও হার মানিয়েছে।অর্থাৎ বলা যেতে পারে হাওড়ার এই মেট্রো স্টেশনটি বর্তমানে এখন দেশের সবচেয়ে গভীরতম মেট্রো স্টেশন হিসাবে পরিচিত হয়েছে।

এই মেট্রো স্টেশনের একাধিক বৈশিষ্ট্যও রয়েছে যাদের মধ্যে অন্যতম হল এই ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো স্টেশনের মধ্যে রয়েছে চারটি প্ল্যাটফর্মের ব্যবস্থা।কলকাতা দিক থেকে গঙ্গা পার করে প্রথমে হাওড়ায় দাঁড়াবে এই মেট্রো তারপর হাওড়া প্লাটফর্ম নম্বর সহ অন্যান্য অনেক ফিচার রয়েছে। বলে রাখি এই স্টেশনের দৈঘ্য 206 মিটার এবং প্রস্থ 33 মিটার রাখা হয়েছে।তবে এখানেই শেষ নয় এই মেট্রোর আরো একটি বিশেষত্ব হল মাটি থেকে 30 মিটার গভীরে অবস্থিত হলেও এই মেট্রো স্টেশনের মধ্যে রয়েছে তিনটি প্রবেশদ্বারের ব্যবস্থার পাশাপাশি রাখা হয়েছে যাত্রীদের সুবিধার জন্যেও 12 টি লিফটের ও ব্যবস্থা।

আর এটি বর্তমানে হাওড়া স্টেশনের ঠিক নিচেই তৈরি করা হয়েছে নতুন মেট্রো স্টেশনটিকে আর এই স্টেশন থেকে 90 সেকেন্ড অন্তর অন্তর ট্রেন চলাচলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। যদিও এই মুহূর্তে কলকাতায় কোভিড- 19 এর কারণে এখনও মেট্রো পরিষেবা বন্ধ রয়েছে। হুগলি নদীর নীচ দিয়ে যাবে এই মেট্রোটি, যা ভারতে প্রথম। সেক্টর 5-হাওড়া ময়দানের মোট 16.6 কিলোমিটার দূরত্ব অতিক্রম করবে এই মেট্রো।