রাস্তায় কুড়িয়ে পাওয়া টাকা কী করতে হয় জানেন কী! কী সংকেত বয়ে নিয়ে আসে সঙ্গে জানতে

কথাতেই আছে পড়ে পাওয়া চৌদ্দ আনা। রাস্তায় কুড়িয়ে পাওয়া টাকা পেতে কার না ভালো লাগে। অনেক সময় আমাদের সঙ্গে এমন ঘটনা ঘটে থাকে যে আমরা রাস্তায় হয়তো কখনো বের হয়েছি, ঠিক তখনই দেখতে পেলাম রাস্তায় পড়ে রয়েছে কোন কয়েন অথবা নোট। এমতাবস্থায় অনেকেই সঙ্গে সঙ্গে সেই টাকা তুলে নিয়ে চলে যান আবার অনেক মানুষ আছেন সেই টাকা দেখেও দেখেন না। আবার কিছু কিছু মানুষ এমনও রয়েছেন যারা সেই সমস্ত টাকা তুলে কোন দুস্থ মানুষকে দিয়ে দেন অথবা মন্দিরের প্রণামী বাক্স ঢেলে দেন। কিন্তু কোনদিন কি ভেবেছেন রাস্তায় পড়ে থাকা এই টাকা আপনাকে কি সংকেত দিচ্ছে?? তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক।

অর্থ অথবা সম্পত্তিকে লক্ষ্মীর প্রতীক বলে মনে করা হয়। এমতাবস্থায় রাস্তায় পড়ে থাকা অর্থ যদি আপনি দেখেও না দেখার ভান করে চলে যান, তাহলে তাহলে সেটা লক্ষীকে অপমান করা হয় বলে মনে করা হয়। বাড়ি থেকে বেরোনোর সময় অথবা ফেরার সময় যদি আপনি অর্থ পান তাহলে জেনে রাখবেন এই দুটি ক্ষেত্রে আপনার অর্থ পাওয়ার গুরুত্ব একেবারেই আলাদা।

বাড়ি থেকে বেরোনোর সময় যদি অর্থ পান, তাহলে সেটি অফিসে অথবা কর্মস্থলে রেখে দিন। সেটি কখনো খরচা করবেন না। অন্যদিকে ফেরার পথে যদি ফেরার পথে টাকা অথবা অর্থ পান, তাহলে শাস্ত্র অনুসারে এটি নিজের কাছে রেখে দেওয়া সবথেকে শ্রেয়। এটি কখনো খরচ করবেন না, নিজের কাছে আলাদা করে রেখে দেবেন। বাইরে থেকে অর্জিত অর্থের সঙ্গে এই অর্থ রাখলে খরচ হয়ে যেতে পারে, তাই এই অর্থ টিকে আপনি ডায়েরি অথবা খামে ভরে রেখে দিতে পারেন।

জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, কেউ যদি টাকা কুড়িয়ে পান তাহলে সেটিকে খুব শুভ ইঙ্গিত বলে মনে করা হয়।জ্যোতিষ শাস্ত্রে টাকাকে লক্ষ্মীর অন্য এক রূপ বলে মনে করা হয়। তাই কেউ যদি টাকা কুড়িয়ে পান তাহলে মনে করতে হবে সেই ব্যক্তির উপরে মা লক্ষ্মীর কৃপা বর্ষণ হয়েছে। সেই ব্যক্তির জীবনে অর্থ সংক্রান্ত সমস্যা খুব দ্রুত সরে যেতে চলেছে।

নতুন কিছু কাজ শুরু করার ভাবনা চিন্তা করার সময় যদি হঠাৎ টাকা কুড়িয়ে পান তাহলে মনে করবেন আপনার নতুন পদক্ষেপ অবশ্যই সফল হবে। এছাড়া যদি খুব ভোরবেলা আপনি টাকা কুড়িয়ে পান তাহলে মনে করতে হবে আপনার ভাগ্য আপনার প্রতি সুপ্রসন্ন হতে চলেছে। সুখ-সমৃদ্ধি বৃদ্ধি পাবে আপনার জীবনে। টাকা পয়সা কুড়িয়ে পেলে কোনোভাবেই তা দান করে দেবেন না। মা লক্ষ্মীর আশীর্বাদস্বরূপ সেটি নিজের কাছে রেখে দেওয়ার চেষ্টা করবেন। গঙ্গা জলে সেই টাকা ধুয়ে ঠাকুরের আসনের রেখে নিত্য পূজা করলে মা লক্ষ্মীর আশীর্বাদ আপনার উপর সদা বর্ষণ করবে।