সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কিনবেন! অবশ্যই মাথায় রাখবেন এই বিষয়গুলি, না হলে পড়তে পারেন বড় সমস্যায়

আপনি কি আগামী দিনের সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কেনার চিন্তাভাবনা করছেন? তাহলে মাথায় রাখতে হবে এই ব্যাপারগুলি।অনেকেই পছন্দ করেন সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কিনবার জন্য, কিন্তু এই সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কেনার ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাদের উচিত কিছু কথা মাথায় রাখা, যার ফলে আপনি ভবিষ্যতে ঠকার হাত থেকে বেঁচে যেতে পারেন। তখন আপনি সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কিনবেন তখন অবশ্যই সেই গাড়ির সম্পূর্ণটা পরীক্ষা করে নেবেন।

দিনের পর দিন যেভাবে দেশে সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কেনার চাহিদা বেড়ে যাচ্ছে তারই জন্যে এবার অটোমোবাইল কোম্পানিগুলি সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ির শোরুম খুলছে।ইজি টেস্ট ড্রাইভ এর মাধ্যমেই সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কেনা উচিত তা কিন্তু নয় এই সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কেনার জন্য আপনাকে কিছু বিষয়ে অবশ্যই সর্তকতা অবলম্বন করতে হবে। প্রথমত আপনি যখন সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কিনবেন সে ক্ষেত্রে খেয়াল রাখবেন যখন টেস্ট ড্রাইভ নিতে যাচ্ছেন সেই সময়ে সেই টেস্ট ড্রাইভ এর দূরত্ব যেন যথেষ্ট হয় অর্থাৎ ৩০ কিমি পর্যন্ত যেন হয়।

টেস্ট ড্রাইভ করার আগে অবশ্যই গাড়ির তাপমাত্রা আপনাকে পরীক্ষা করে নিতে হবে, কি টেম্পারেচার রয়েছে গাড়ির সেটা আপনি জানতে গাড়ির বনেতে হাত রাখলেই জানতে পারবেন। এর ফলে আপনি বুঝতে পারবেন যে গাড়ি আপনার আগে কেউ চালিয়েছে কিনা। যদি তাপমাত্রা ঠিক থাকে তাহলেই আপনি টেস্ট ড্রাইভ করতে পারবেন।

টেস্ট ড্রাইভ করার সময় গাড়ি থেকে যদি আপনি শব্দ পান তবে সেই শব্দ শুনেই গাড়ি কি রকমের অবস্থানে রয়েছে সে সম্পর্কেও আপনি খুব সহজেই জানতে পারবেন। আপনি যখন এক্সেলেটরে চাপ দেবেন সেই সময় জানলা খোলা অথবা বন্ধ করার দিকে কোন শব্দ হচ্ছে কিনা সেটাও খেয়াল করুন।

সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কেনার সময় আপনাকে অবশ্যই এমারজেন্সি ব্রেক পরীক্ষা করে নিতে হবে, কারণ এইটা নিরাপত্তাজনিত কারণে ভীষণ জরুরী। ভালো রাস্তায় টেস্ট ড্রাইভ করার ক্ষেত্রে আপনি গাড়ির অবস্থা কিরকম সে ব্যাপারেও জানতে পারবেন। গাড়ি চালানোর সময় দেখবেন যে সাইলেন্সার থেকে কোনরকম ধোঁয়া বের হতে দেখা যাচ্ছে কিনা যদি দেখেন তাহলে অবশ্যই জানবেন ইঞ্জিনে সমস্যা রয়েছে।