ইলেকট্রিক বাইক নেওয়ার কথা ভাবছেন, তাহলে অবশ্যই মাথায় রাখবেন এই বিষয়গুলি নাহলে পড়তে পারেন বড়োসড়ো সমস্যায়

বর্তমানে পেট্রোল ১০০ টাকা পেরিয়ে গেছে অন্যদিকে ডিজেল ১০০ টাকা ছুঁই ছুঁই। প্রতিদিনই পেট্রোল ডিজেলের মূল্য বৃদ্ধিতে মাথায় হাত সাধারণ মানুষের। ভারতের প্রায় ৯০ শতাংশ স্কুটার বা বাইক পেট্রলে চলে। জ্বালানির দামের অস্থিরতায় বিপদে পড়েছেন দু চাকার মালিকেরা তারা এখন চাইছেন বিকল্প কিছু। কিছুদিন আগে ওলা নামক একটি বেসরকারি সংস্থা বাজারে নিয়ে এসেছে ব্যাটারি চালিত স্কুটার মাত্র ১৮ মিনিট চার্জ দিলে চলবে ৭০ কিলোমিটারেরও বেশি। এই ঘোষণা হওয়ার সাথে সাথেই ব্যাপক হারে বুকিং করতে শুরু করেছে সাধারণ মানুষ। তবে ভারতের রাস্তায় এমন স্কুটার কেনার আগে কোন কোন বিষয় আপনাকে মাথায় রাখতেই হবে আসুন দেখে নি।

Electric bike

১) গতি:-

ব্যাটারি চালিত স্কুটার বাইক এর মূল সমস্যা হলো গতি। একবার কিনে ফেললেই আপনার পিছু টান হয়ে যায়। ঘন্টায় ২৫ কিলোমিটার গতিবেগ থেকে ৯০ কিলোমিটার গতিবেগ এর ইলেকট্রিক স্কুটার পাওয়া যায়। তবে গতি বাড়লে দাম বাড়ে, সুতরাং ব্যাটারি চালিত গাড়ি কেনার আগে দেখে নিন কোন গতিতে আপনার কাজ হবে।

২) একবার চার্জ দিলে কতদুর :-

একবার ফুল চার্জ দিলে আপনার যানটি কতদূর যেতে পারে সেটা জেনে নেওয়া কিন্তু দরকার। কোন ভালো ইলেকট্রিক স্কুটার হলে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত আরামে যাতায়াত করতে পারবেন আপনি। আবার কোন কোন ইলেকট্রিক স্কুটার এ ১৫০ কিলোমিটার অব্দি আরামে যাওয়া যায় কোনটা আপনার হলে ভালো হবে কেনার আগে অবশ্যই দেখে নিন।

৩) কোথায় চার্জ দেবেন:-

চার্জ হল ব্যাটারি চালিত গাড়ির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। একবার ফুল চার্জ দিলে কতক্ষণ যাবে জানা অবশ্যই জরুরি। কারণ মাঝরাস্তায় চার্জ ফুরিয়ে গেলে লক্ষ্য রাখতে হবে কোথায় বা কোন কোন পেট্রোল পাম্পে আপনার গাড়ির চার্জ দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে।

৪) কতটা ওজন বহনে সক্ষম:-

সাধারণত এই ধরনের গাড়ি গুলি খুবই হালকা প্রকৃতির হয়। ফলে একটু বেশি ওজনের মানুষেরা ইলেকট্রিক স্কুটার চলাচলে সমস্যা হতে পারে। এছাড়াও আপনি ছাড়াও পিছনে আর একজন বসলে তার ক্ষমতা নিতে পারবে কিনা সেটাও জেনে রাখা অবশ্যই দরকার।