পরিস্থিতির উন্নতি ঘটলে আগামী 5 সেপ্টেম্বর থেকে খুলতে পারে রাজ্যের সমস্ত স্কুল-কলেজঃ মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়..

পশ্চিমবঙ্গের যেভাবে করোনা সংক্রমণের হার বাড়ছে তাতে চিন্তিত পশ্চিমবঙ্গ সরকার। অন্যান্য রাজ্য গুলির মত পশ্চিমবঙ্গ করোনা সংক্রমণের হার বেড়ে চলেছে। প্রত্যেকদিন এরাজ্যে দুই হাজারেরও বেশি নতুন করে করোনাতে আক্রান্ত হচ্ছেন। এর জেরেই পড়ুয়াদের কথা ভেবে গত মার্চ মাস থেকেই সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। এখনো পর্যন্ত কবে থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খুলবে সেই সম্পর্কে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারছে না সরকার। আর তাই এবার পুরো আগস্ট মাস জুড়ে স্কুল-কলেজ সহ আরো অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রাখার নির্দেশ দিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পরিস্থিতি উন্নতি না হওয়ার কারণেই এমন সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই জানিয়ে দিয়েছেন যে, পড়ুয়াদের ভবিষ্যৎ নিয়ে কোনরকম ঝুঁকি আমরা নেব না। এর পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন যে, যদি পরিস্থিতির উন্নতি হয় তাহলে 5 সেপ্টেম্বরের পর থেকে স্কুল-কলেজ খোলার জন্য নির্দেশ দেওয়া হতে পারে। তবে এক্ষেত্রে অল্টারনেটিভ দিনে ক্লাস চালু করার কথা ভাবতে পারে রাজ্য সরকার। মঙ্গলবার নবান্নের সাংবাদিক বৈঠকে এমনটাই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

স্পষ্টভাবে বোঝা যাচ্ছে এই মুহূর্তে রাজ্য সরকারের কোনো প্রশ্নই নেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো খোলার ব্যাপারে। একথা খোদ বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন,’ আগামী 31 আগস্ট পর্যন্ত স্কুল- কলেজ সহ সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির খোলার কোন প্রশ্নই উঠছে না। পরিস্থিতি যদি উন্নতি হয় তাহলে 31 শে আগস্ট এই নিয়ে বৈঠকে বসবো আমরা।’ রাজ্যের করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে আগামী 5 সেপ্টেম্বর অর্থাৎ যে দিনটিতে আমরা শিক্ষক দিবস পালন করি সেই দিন থেকেই স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।

5 ই সেপ্টেম্বর থেকে স্কুল খুললেও প্রত্যেকদিন খোলা থাকবে না। এক্ষেত্রে অল্টারনেটিভ দিনগুলিতে ক্লাস হবে। এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন,’ আমরা চেষ্টা করছি যাতে 5 ই সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খোলা যায়। ঈদের সব কিছু স্বাভাবিক থাকে তাহলে রাধাকৃষ্ণনের জন্মদিন থেকেই সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলি খোলা হবে। পুজোর আগের এক মাস পর্যন্ত একদিন অন্তর অন্তর স্কুল কলেজ খোলা হতে পারে। যদিও এটা পুরোটাই নির্ভর করছে যে আগস্ট মাসে রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি কোন জায়গায় পৌঁছায় তার উপর।’