নতুন খবররাজনৈতিক

যদি কেউ আমাদের উস্কানি দেয় তাহলে আমরা ছেড়ে কথা বলবো না!পাকিস্তান কে উদ্দেশ্য করে কড়া বার্তা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির।

ক্রিকেট হোক বা রণভূমিই হোক না কেনো পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের একটা দ্বন্দ্ব লেগেই রয়েছে বহুদিন থেকেই। প্রথম থেকেই পাকিস্তানের নজর রয়েছে ভারতের উপর। যদিও এর আগে পাকিস্তানকে অনেকবার এর জন্য সবধান ও করা হয়েছে তবু পাকিস্তান তাদের কর্মকাণ্ড থেকে বিরত নেয় নি। যদিও এবার নরেন্দ্র মোদি নাম না করেই দিয়ে দিলেন পাকিস্তানকে আরেকবার কড়া বার্তা। আজ দিল্লির ন্যাশনাল ক্যাডেটের (এনসিসি) এক  রেলিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানালেন, ‘অর্থনীতি হোক বা রণভূমিতেই হোক ভারত সব রকম ধাক্কা সামলানোর জন্য প্রস্তুত । কোন দেশ যদি ভারতের সাথে শত্রুতা করে থাকে ভারত কোন ভাবেই ছেড়ে কথা বলবে না, উল্টে তার জবাব দেবে ভারত।’

সামনে আসতে চলেছে লোকসভা নির্বাচন আর ইতিমধ্যেই মাননীয় নরেন্দ্র মোদি আজকের দিন টিটেই ধর্মীও মেরুকরণ এর পাশাপাশি বিজেপি জাতীয়তা বাদকে কেন্দ্র করে বক্তৃতা দিলেন। আর লোকসভা ভোটকে কেন্দ্র করে তিনি তার লক্ষ পরিষ্কার করে দিলেন। তার বক্তব্য , ” আমরা কোন দেশকে উস্কানি দিই না “। এছাড়াও পাকিস্তানের হওয়া সার্জিক্যাল স্ট্রাইক কে কেন্দ্র করে তিনি বলেন, ভারতীয় সেনা আগে থেকে কারো সাথে শত্রুতা করে না । আবার যদি কেউ উস্কানি দেয় তাহলে ভারতের সেনা ছেড়ে কথা বলবে না তার জবাব তারা রণভূমিতেই  দেবে। শুধু তাই নয় , তিনি পাকিস্তানকে সতর্ক করে বলেন , আমরা শান্তির সমর্থক দেশ কিন্তু রাষ্ট্ররক্ষা করার জন্য কোন পদক্ষেপ নিতে দেশ পিছু হাটবে না। আর বর্তমানে দেশের অর্থব্যবস্থায় হোক অথবা সৈনিকদের ক্ষমতায় আগের তুলনায় অনেকগুণ এখন বেশি। তাই ভারতের সাথে মোকাবেলা করার আগে একশো বার ভাবা দরকার।

আবার আজকে ওই এনসিসির রেলিতে উপস্থিত ছিলেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। অনেকদিন থেকে বিরোধী অর্থাৎ বিশেষ করে কংগ্রেস সম্প্রতি রাফায়েল চুক্তিকে  কেন্দ্র করে বিজেপিকে কোণঠাসা করে রেখেছে। আর তারই পরিপ্রেক্ষিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নাম না করে পরিষ্কার জানিয়ে দিলেন, ” অনেকদিন থেকে পড়ে থাকা যুদ্ধবিমান কেনার প্রক্রিয়া আবার শুরু করা হয়েছে , ভারতের মাটিতে আনা হয়েছে নানা রকম আধুনিক  কামান, নানা রকম আধুনিক প্রযুক্তির ট্যাংক থেকে শুরু করে বারুদ, হেলিকপ্টার পর্যন্ত বানানো হচ্ছে । ভারতের সৈন্যবাহিনী এখন এতটাই উন্নত যে যেসব দেশ জল,  স্থল এবং আকাশ পথে পরমাণুর নিক্ষেপন  করতে পারে সে সব দেশের নামের তালিকাই এখন ভারতের নাম রয়েছে।

Related Articles

Back to top button