“যদি মাননীয় কে হারাতে না পারি, তাহলে রাজনীতি ছেড়ে দেব”- মমতাকে চ্যালেঞ্জ শুভেন্দুর

ফের একবার বঙ্গ রাজনীতি উত্তাল নন্দীগ্রাম কে কেন্দ্র করে।  মমতার মাস্টার স্ট্রোক এর জবাব তৃণমূল নেত্রীর গড় থেকেই ওপেন চ্যালেঞ্জ জানালেন শুভেন্দু।  নন্দীগ্রামে দাঁড়িয়ে সদর্পে ঘোষণা করেছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে নন্দীগ্রামের প্রার্থী তিনি৷  তারই জবাব দিলেন দাপটের সঙ্গে শুভেন্দু অধিকারী।

শুভেন্দু জানালেন, “আজকের তারিখ সময় দেখে লিখে রাখুন।  হাফ লাখ ভোটে  যদি মাননীয়াকে না  হারাতে পারি, আমি রাজনীতি ছেড়ে দেব। ” বছর দশেক পর ফের বঙ্গ রাজনীতিতে বদল এর ডাক।  কেন্দ্রবিন্দু আবারও নন্দীগ্রাম।  বিজেপিকে জবাব দিতে মমতার ঘোষণা চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।  2021 এর বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রাম থেকে প্রার্থী হিসেবে দাঁড়াবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  নন্দীগ্রামের জনসভা থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এই ঘোষণা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  নাম না করে শুভেন্দু অধিকারী কে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন মমতা৷

Advertisements

Advertisements

সেই ঘোষণার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই মমতার খাস তালুকে শুভেন্দু অধিকারীর নিশানায় তৃণমূল সুপ্রিমো।  তৃণমূল নেত্রীর নাম না করে তিনি কটাক্ষ করে বলেন,  “নন্দীগ্রাম থেকে দাঁড়াবে, সে দাঁড়াতেই পারেন।  আপনার দলে কোন শৃঙ্খলা নেই।  যে যা খুশি সিদ্ধান্ত জানাতে পারেন।  আপনি আপনার ভাইপো যা খুশি ঘোষণা করতে পারেন।  কিন্তু বিজেপি পার্টির শৃঙ্খলিত।  এখানে যে কেউ দাঁড়াবেন ঘোষণা করতে পারে না।  ওটা আপনার প্রাইভেট লিমিটেড নয়।  কথা দিচ্ছি পদ্মফুল হাতে নিয়ে পার্টি আমাকে দাঁড়াতে দিক বা অন্য কেউ নন্দীগ্রাম থেকে দাঁড়ান হাফ লাখ ভোটে মাননীয়া কে হারাতে না পারলে রাজনীতি ছেড়ে দেব।  ”

নন্দীগ্রামে তৃণমূল নেত্রীকে নিয়ে  শুভেন্দু অধিকারী প্রশ্ন তুলেছেন।  “নন্দীগ্রামের জন্য কি করেছেন?  ভোট এলে  নন্দীগ্রামের কথা মনে পড়ে।  আপনি তো নন্দীগ্রাম আসেন পাঁচ বছর অন্তর।  ” সেইসঙ্গে দক্ষিণ কলকাতা থেকেও তির্যক মন্তব্য করেন শুভেন্দু অধিকারী।  আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে বলেন,  ” তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেডের নেত্রীর এত বুদ্ধি যে 294 আসনে মুখ হতে হয়েছে৷ জেলার পর্যবেক্ষণেও  উনি।  এত বুদ্ধি নিয়ে বিহার থেকে ঠিকাদার ভাড়া করে এনে বুদ্ধি ধার করতে হচ্ছে। ”

টুইটারে ট্রেন্ডিং বয়কট বলিউড, সইফের বাড়ির সামনে পুলিশের নিরাপত্তা

আগামী বিধানসভা নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার আগেই প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা নিয়ে সরগরম বাংলার রাজ্য রাজনীতি।  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই ঘোষণার পর বিরোধীদের পাল্টা আক্রমণ হেরে যাওয়ার ভয়ে সুরক্ষিত জায়গা খুঁজছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুভেন্দু অধিকারী মমতাকে আক্রমণ করে বলেন বাংলায় তৃণমূলের জন্য কোন জায়গা নেই৷

তৃণমূল  শিবিরের উদ্দেশ্যে শুভেন্দু চ্যালেঞ্জ জানান ” যে যেখানে দাঁড়ানোর দাঁড়িয়ে যান৷  শুধু বলে দিন কত ভোটে হারাতে হবে৷ ” ভবানীপুরে হেরে যাওয়ার  সম্ভাবনা রয়েছে তাই নন্দীগ্রাম থেকে ভোটের প্রার্থী হয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  এই দাবি তুলেছে বিজেপি এবং  বিরোধী দল সিপিএম।