কর্মব্যস্ত জীবন, ভালোবাসার দিনেই উলুবেরিয়ার দপ্তরেই বিয়ে সারলেন IAS-IPS যুগল…

গতকাল শুক্রবার দিন ছিল ভালোবাসা দিন অর্থাৎ ভ্যালেন্টাইন্স ডে। তবে আজকে আমরা যাদের কথা বলতে যাচ্ছি তারা দুজনই নিজের নিজের কর্ম জীবন নিয়ে ব্যস্ত, তবে তারা দুজনে ঠিক করেছিলেন যে ভ্যালেন্সটাইন্ড এদিন বিয়েটা সেরে ফেলবেন তবে কাজের ফাঁকে এইভাবে ছুটি পাওয়া তো অসম্ভব ব্যাপার। কারণ পাত্রী যে আইপিএস অফিসার এবং পাত্র আইএএস অফিসার। তাই এবার কাজের জায়গাতেই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেন দুজনে একে-অপরের সাথে। নিজেদের দপ্তরেই সেরে ফেললেন বিয়ে এই দুই অফিসার।

আর এই ঘটনাটি বাংলারই উলুবেড়িয়ার এর ঘটনা। এইদিন হাওড়া অঞ্চলের মহকুমা শাসক তুষার সিংলা বিয়ে করলেন বিহারের পাটনার এএসপি নভোজিত সিমিকে। এক্ষেত্রে বিয়ের জায়গা হিসাবে নিজের দপ্তরকেই বেছে নিলেন তুষার সিংলা। গতকাল শুক্রবার দিন অর্থাৎ 14 ই ফেব্রুয়ারি ছিল ভালোবাসার দিন সেই দিনই সকাল 11 টা নাগাদ দুজনেই বিয়ের রেজিরি সেরে ফেললেন।তবে গতকাল রেজিরি সেরে ফেললেও অবশ্য তার আগের দিন রাত আড়াইটে নাগাদ স্থানীয় এক কালীমন্দিরে ওরা দুজনে মালা বদল সেরে ফেলেছেন, এক্ষেত্রে বিয়েতে জাঁকজমক না থাকলেও পাত্র-পাত্রী জানিয়েছেন তাদের বিয়ের রিসেপশনে সকলকে আমন্ত্রণ করবেন।

তবে এক্ষেত্রে দুই জনই কিন্তু পাঞ্জাবের বাসিন্দা তবে কাজের দরুনই দুজন দেশের দুই রাজ্যে রয়েছেন।তবে এ বিষয়ে উলুবেড়িয়ার মহকুমা শাসক তুষার সিংলা জানান যে 2021 সালে পশ্চিমবঙ্গের ভোট মিটে গেলে তার মনের মানুষকে এখানে নিয়ে আসবেন। আর এই দুজন দুজনের সাথে আলাপ হয়েছিল কাজের সূত্রেই। অবশেষে সেই পরিচয় থেকে পরিণয় আর সেখান থেকেই নেওয়া হয় বিয়ের সিদ্ধান্ত। তবে কাজের এত চাপ যে বিয়ের সময় বার করার জন্য মুশকিল হয়ে দাঁড়ায় দুজনের কাছে। তাই অবশেষে আইএএস তুষার সিংলা নিজের কাজের জায়গাটিকেই বেছে নিলেন রেজিরি করার জন্য। তবে যাই হোক এ বিষয়ে তাদের দুজনের মনের মধ্যে কোনো আক্ষেপ নেই।