দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে প্রথম রাফেল যুদ্ধবিমান হাতে পেল ভারত..

অবশেষে দীর্ঘ সময়ের অবসান ঘটিয়ে ভারতীয় বায়ুসেনার হাতে এল যুদ্ধবিমান রাফেল। গত বৃহস্পতিবার দিন ভারতের হাতে প্রথম রাফেল যুদ্ধবিমান তুলে দেওয়া হয় ফান্সের সংস্থা দাসাল্ট অ্যাভিয়েশন তরফ থেকে। ভারতের বায়ুসেনা ডেপুটি চীফ মার্শাল এর হাতে গত বৃহস্পতিবার দিনে এই যুদ্ধবিমানটি তুলে দেয় প্রস্তুতকারী সংস্থা।আরো বলে রাখি পরিকল্পনামাফিক যেমন টা বলা হয়েছিল চুক্তি হওয়ার প্রায় তিন বছর পর যুদ্ধবিমান পাওয়া যাবে।

আর ঠিক সেরকমটাই ঘটল এবার চুক্তির তিন বছর পরেই ভারতীয় বায়ুসেনা পেলো যুদ্ধবিমান রাফেল।
ভারতীয় বায়ুসেনা সূত্রে জানতে পারা গেছে যে রাফাল যুদ্ধবিমানটিকে ভারতীয় বায়ুসেনা হাতে পেয়েছে তার টেল নম্বর রাখা হয়েছে আর বি ওয়ান (RB-1) । এই রাফাল যুদ্ধবিমান এর টেল নম্বরটি রাখা হয়েছে ভারতের পরবর্তী বায়ুসেনা প্রধান এয়ার মার্শাল রাকেশ কুমার সিং ভাদুড়িয়ার নাম অনুসারে। এয়ার মার্শাল আরকেএস ভাদুরিয়া অক্টোবর মাস থেকে বায়ুসেনার পরবর্তী প্রধান হচ্ছেন।

শুধু তাই নয় তিনি হচ্ছেন প্রথম ভারতীয় বায়ুসেনা অধিকারীক যিনি রাফায়েল বিমান চালিয়েছেন। তাছাড়া ফ্রান্সের সঙ্গে বিমানগুলোকে কেনার সময় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন তিনি। ভারত ও ফ্রান্সের মধ্যে যৌথ আলোচনার মাধ্যমে ভারত যুদ্ধবিমান রাফেল তৈরি করার দায়িত্ব তুলে দিয়েছিল ফরাসি সংস্থা আর এই চুক্তি হয়েছিল সেপ্টেম্বরে 2016 তে। রাফাল যুদ্ধবিমান টি দূরপাল্লার সঙ্গে যুদ্ধ এবং মিসাইল বহন করতে সক্ষম।

এই চুক্তি অনুসারে ভারত এবং ফ্রান্সের মধ্যে 36 টি উচ্চপ্রযুক্তির সম্পূর্ণ যুদ্ধবিমান রাফেল কিনতে ভারত 58 হাজার কোটি চুক্তিবদ্ধ করে। আরে 36 টি রাফাল যুদ্ধবিমানের মধ্যেই প্রথমটি ভারতের হাতে চলে এলো।দেশে যবে থেকে রাফাল যুদ্ধবিমান কেনার কথা উঠেছে তবে থেকে এই নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক, তবে এখনও সেই বিতর্কের অবসান ঘটেনি।এই নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির উপরে একাধিক অভিযোগ উঠতে শুরু করেছিল যার মধ্যে ছিল “চৌকিদার চোর হ্যায়”।অন্যদিকে সুপ্রিম কোর্টে এখনো পর্যন্ত রাফায়েল চুক্তির পুনর্বিচারের মামলার শুনানি চলছে।

তবে ভোট মিটে যাওয়াতে রাজনৈতিক মহলের তরফ থেকে এই বিষয় নিয়ে খুব একটা মাথা ঘামাচ্ছে না। তবে সে যাই হোক না কেন তবে রাফাল যুদ্ধবিমানের কার্যক্ষমতা নিয়ে কারো মনে কোন প্রকার সন্দেহ নেই। এমনকি এর কার্যকারিতা কে নিয়ে কোন প্রকার বিরোধীদলগুলোও আজ পর্যন্ত প্রশ্ন তোলেনি। একথা রাজনীতির মহলে কারও জানতে বাকি নেই যে রাফায়েল যুদ্ধবিমান যদি ভারতীয় বায়ুসেনা হাতে এসে যায় তাহলে ভারতীয় বায়ুসেনা শক্তি আরো অনেক গুন বেড়ে যাবে, এই নিয়ে কারো কোন প্রকার সন্দেহ নেই।

Related Articles

Close