ফেসবুকেই বন্ধুত্ব বিদেশিনীর সঙ্গে তার! আর তার পরই 8 লাখ টাকার প্রতারণা শিকার হাওড়ার ব্যক্তি

ফেসবুকে এক বিদেশি মহিলার সাথে বন্ধুত্ব করে এবার প্রতারণার শিকার হলেন শিবপুরের এক ব্যক্তি। খবর থেকে জানতে পারা যায় এই ব্যক্তির নাম তন্ময় ঘোষ এই ব্যক্তি অভিযোগ করেছেন 8 লাখ টাকার প্রতারণার শিকার হয়েছেন তিনি ফেসবুকের মাধ্যমে। শিবপুর ধর্মতলা লেনের এই বাসিন্দা পেশায় একজন অ্যাকাউন্টেন্ট তিনি জানিয়েছেন বেশ কয়েক মাস আগে ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয় হয়েছিল নিকোল অ্যাড্রিল নামে এক বিদেশিনী মহিলার সঙ্গে। আর এই বিদেশিনী মহিলা নিজেকে লন্ডনবাসী হিসাবে পরিচিত করিয়েছিলেন।

তবে শুধু ফেসবুকেই নয় ফেসবুক ছাড়া হোয়াটসঅ্যাপে বেশ কিছুদিন কথাবার্তা হয়েছে তাদের দুজনের মধ্যে। আর তারপরই তাদের দুজনের বন্ধুত্ব বেশ গাঢ় হতে থাকে, পরে ওই বিদেশিনী মহিলা তন্ময় বাবুকে জানান যে তিনি কলকাতায় এসে তার সঙ্গে দেখা করতে চান এবং ভারত ঘুরে দেখতে চান।আর এরপরই যা ঘটে সেই ঘটনার জেরে তন্ময় বাবু অভিযোগ করে থানায় বলেন যে গত 15 অক্টোবর ওই মহিলা তাকে আবারো ফোন করে। আর সেদিন ফোন করে বলেন তিনি মুম্বাই এয়ারপোর্টে আছেন তার সঙ্গে 40 হাজার পাউন্ড সহ বেশকিছু মূল্যবান সামগ্রী রয়েছে তবে কিছু কাস্টমস এর দরুন সেই টাকা ও সামগ্রিকে আটকে দিয়েছে।

তারপরই ওই মহিলা দাবি করে তন্ময় বাবুকে বলেন তিনি যদি কাস্টম ফি বাবদ 7 লাখ 83 হাজার 200 টাকা তার অ্যাকাউন্টে জমা করে দেন তাহলে তিনি এয়ারপোর্ট থেকে ছাড়া পেয়ে যাবেন। আর একবার সেই মহিলা এয়ারপোর্ট থেকে ছাড়া পেয়ে গেলে সেই টাকা ফেরত ও দিয়ে দিবেন বলে তন্ময় বাবুকে আশ্বাসও দেন তিনি। এরপরই অ্যাড্রিল নামক ওই মহিলার অ্যাকাউন্টে বেশ কয়েকবার টাকা টান্সপার করে দেন তন্ময় বাবু।

আর তারপরই তন্ময় বাবু অভিযোগ করেন যে টাকা পাওয়ার পরই ওই বিদেশিনী তার সঙ্গে যোগাযোগ ছিন্ন করে দেয়।পরে তিনি যে প্রতারিত হয়েছেন সেটি বুঝতে পেরে প্রাথমিকভাবে অভিযোগ দায়ের করেন থানায় এই মুহূর্তে শিবপুর থানার পুলিশ এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।তবে প্রাথমিকভাবে এখন পুলিশ অনুমান করেছে এই ঘটনার পেছনে একটি বড় চক্র কাজ আছে একাধিক মাথা রয়েছে এই চক্করে পেছনে।শুধু তাই নয় এই মহিলা কি সত্যি কারের বিদেশিনী মহিলা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে পুলিশের তরফ থেকে।