এই পাঁচটি পদ্ধতির মাধ্যমে এখন আপনিও বাড়িতে বসে উপার্জন করতে পারবেন টাকা, বিস্তারিত জানতে

এখন আপনি ইন্টারনেটের মাধ্যমে ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।  তবে, অনলাইন প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে কাজ করার সময় আপনাকেও যত্নবান হতে হবে।  আজ আমরা এমন কয়েকটি উপায় বলব যা আপনাকে অনলাইনে অর্থ উপার্জনে সহায়তা করতে পারে।

Freelancing

1. ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing)

ফ্রিল্যান্সিং সবসময় অর্থ উপার্জনের একটি জনপ্রিয় উপায় এবং ইন্টারনেটে অর্থ উপার্জনের এই বিকল্পটি  দুর্দান্ত।  বিভিন্ন দক্ষতা সম্পন্ন লোকদের জন্য ফ্রিল্যান্সিংয়ের অফার করে এমন অনেকগুলি ওয়েবসাইট রয়েছে।  আপনাকে অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে , তালিকাগুলির মাধ্যমে ব্রাউজ করা এবং আপনার পছন্দসই কাজের জন্য আবেদন করতে হবে।

 

কিছু ওয়েবসাইট আপনাকে এর জন্য আপনার দক্ষতার বিশদ বিবরণ সহ ব্যক্তিগত তালিকা দেওয়া হবে,  যাতে ফ্রিল্যান্সিং কর্মীরা সরাসরি আপনার সাথে যোগাযোগ করতে পারে।  আউটফিভার ডটকম, আপওয়ার্ক ডটকম, ফ্রিল্যান্সার ডটকম ওয়ার্কহাইনার ডট কম ফ্রিল্যান্সিং কাজ দিচ্ছে।  এই ওয়েবসাইটগুলির মাধ্যমে, আপনি ঘরে বসে প্রতিদিন $ 5 থেকে 100 ডলার উপার্জন করতে পারবেন।  যদি ক্লায়েন্টরা আপনার কাজ পছন্দ করে তবে তারা আপনার অ্যাকাউন্টে অর্থ পাঠাবে৷ কিছু ক্লায়েন্ট একটি  Pay Pal  অ্যাকাউন্ট খোলার পরামর্শও দেয়।

2. ওয়েবসাইট শুরু করুন (Start website)

আপনার ওয়েবসাইট তৈরিতে সহায়তার জন্য অনলাইনে পর্যাপ্ত সামগ্রী রয়েছে।  এর মধ্যে আপনার ওয়েবসাইটের জন্য ডোমেন, টেম্পলেট এবং ডিজাইন নির্বাচন করা অন্তর্ভুক্ত।  আপনি যখন কোনও ওয়েবসাইট তৈরি করবেন তখন আপনার ওয়েবসাইট দেখার জন্য গ্রাহকরা যখন গুগল অ্যাডসেন্সে সাইন আপ করেন, তখন আপনার ওয়েবসাইটে প্রদর্শিত বিজ্ঞাপনটিতে ক্লিক করে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন৷ আপনি যত বেশি ট্র্যাফিক আপনার ওয়েবসাইটে পাবেন, আপনার আয়ের সম্ভাবনা তত বেশি হবে।

3. মার্কেটিং এর সাথে যুক্ত হওয়া (Engage in marketing)

যখন আপনার ওয়েবসাইটটি প্রস্তুত করার পর , এর অর্থ ট্র্যাফিক আসতে শুরু করে, তারপরে সংস্থাগুলি তাদের ওয়েবসাইটে লিঙ্কটি সন্নিবেশ করার অনুমতি দেয়।  আপনার সাইটে থাকা লিঙ্কটির মাধ্যমে কেউ যখনই কেনাকাটা করবেন, আপনিও উপার্জন করতে পারবেন।

৪. সমীক্ষা ও পর্যালোচনা (Online survey)

অনলাইনে সমীক্ষা পরিচালনা, অনলাইনে অনুসন্ধান এবং পণ্যের পর্যালোচনা লেখার জন্য অর্থ সরবরাহকারী অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে।

এই ওয়েবসাইটগুলি  আপনার অ্যাকাউন্টের তথ্যও জিজ্ঞাসা করে।  এ জাতীয় পরিস্থিতিতে সতর্ক হওয়া দরকার।  আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য গ্রহণের মাধ্যমে এটি আপনার ক্ষতিও করতে পারে।  ওয়েবসাইটটি সত্যতা যাচাই করতে হবে৷  সতর্কতা অবলম্বন করুন কারণ তাদের মধ্যে অনেকগুলি কেলেঙ্কারী হতে পারে৷

সুকন্যা সমৃদ্ধি অ্যাকাউন্ট থাকলে ৩১ মার্চের মধ্যে করুন এই কাজ, নাহলে ভেঙ্গে যাবে আপনার মেয়ের স্বপ্ন

৫. ভার্চুয়াল সহকারী হন (Virtual Assistant)

ঘরে বসে সংস্থার কাজ করুন।  গ্রাহকদের সাথে কথা বলাও অন্তর্ভুক্ত।  এই কাজটি ভার্চুয়াল সহকারী (ভিএ) করেছেন।  মূলত তাদের গ্রাহকদের সাথে অনলাইনে যোগাযোগ করে এবং তাদের ব্যবসায়ের দিকগুলি পরিচালনা করে।  আপনি যখন ভার্চুয়াল সহকারী হিসাবে কাজ করেন, সাথে  আপনার নিজের ব্যবসা সেট আপ করতে পারেন। সংস্থাগুলি, ব্যবসা এবং উদ্যোক্তাদের প্রশাসনিক সহায়তা সরবরাহ করে।  তারা ফোন করে।  ই-মেইলের প্রতিক্রিয়া এবং ডেটা এন্ট্রি হিসাবেও কাজ করে।