করোনার জেরে বাতিল হওয়া ট্রেনের টিকিটের টাকা কীভাবে পাবেন ফেরত, জানতে..

গত বৃহস্পতিবার দিন ভারতীয় রেলওয়ের তরফ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে আগামী বিজ্ঞপ্তির না পাওয়া পর্যন্ত সমস্ত রকম ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকবে 30 শে জুন পর্যন্ত সেই কারণে 30 শে জুন পর্যন্ত যে সমস্ত টিকিটের বুকিং করা হয়েছিল সেগুলি বাতিল বলে ঘোষণা করা হয়েছে। তবে এ ক্ষেত্রে যে সকল শ্রমিকদের জন্য স্পেশাল ট্রেন বা বিশেষ প্যাসেঞ্জার ট্রেনের ব্যবস্থা করা হয়েছে শুধুমাত্র সেগুলিই শুরু থাকবে। তবে এর পাশাপাশি রেলওয়ের তরফ থেকে একথাও ঘোষণা করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যেহেতু এক্ষেত্রে বাতিল করে দেওয়া হয়েছে সে সকল ট্রেন পরিষেবাগুলি সেহেতু এক্ষেত্রে টিকিটের মূল্য ফেরত পেয়ে যাবেন সেসকল যাত্রীরা।

আর এই মূল্য ফেরত দেওয়া হবে ভারতীয় রেলের পক্ষ থেকে, তবে এই মুহূর্তে দেশজুড়ে করোনা প্রকোপ সেহেতু এক্ষেত্রে কিছু নির্দেশিকা রাখা হয়েছে এই টাকাটি ফেরত নেওয়ার ক্ষেত্রে, PRS অথবা অনলাইন বা ই- টিকিট এই সমস্ত ক্ষেত্রে ফেরত পাওয়া যাবে সম্পূর্ণ টিকিটের মূল্য। আর এই ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ টিকিটের মূল্য তারাই ফেরত পাবেন যারা আগে টিকিট কেটে রেখেছিলেন অথচ যারা যাত্রা করতে পারেননি 21 শে মার্চের পর থেকে।


তবে আর দেরি না করে জেনে নিন কোন পদ্ধতির মাধ্যমে কীভাবে ফেরত পাবেন আপনার টিকিটের মূল্য… 

প্রথমত এক্ষেত্রে অনলাইন টিকিট বুকিং অর্থাৎ PRS এর ক্ষেত্রে বাতিল টিকিটের টাকা ফেরতের জন্য যাত্রীদেরকে ভ্রমণের তারিখ থেকে ছয় মাসের মধ্যে টাকা ফেরত নেবার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

দ্বিতীয়তঃ যেসকল যাত্রীরা অনলাইনে টিকিট করেছিল তারা এক্ষেত্রে স্বয়ংক্রিয় ভাবে টাকা ফেরত পেয়ে পাবে।

3) আর এক্ষেত্রে যারা অনলাইনের মাধ্যমে তাদের টিকিট করেছিলেন তারা তাদের যাত্রার দিনের ছয় মাসের মধ্যে কাউন্টারে গিয়ে আবেদন করতে পারবেন তাহলে ফেরত পেয়ে যাবেন তাদের টিকিটের মূল্য। তবে সেখানে কাউন্টারে গিয়ে করাতে হবে এক্ষেত্রে টিকিট ডিপোজিট রিসিপ্ট (TDR)। আর এসব তথ্য জমা করার পর সময় পাওয়া যাবে আরো 60 দিন তারপর ভেরিফিকেশন সম্পন্ন হবার পরেই আপনার সম্পূর্ণ টাকা ফেরত দিয়ে দেওয়া হবে।

4) এক্ষেত্রে যদি ট্রেন বাতিল হয়নি তবে করোনা ভাইরাসের ভয়ে কোনো যাত্রী যদি তার যাত্রা করতে চাইছেন না তাহলে সেক্ষেত্রেও অনলাইনে কাটা টিকিটের মূল্য ফেরত নেওয়ার বন্দোবস্ত রয়েছে। তবে এক্ষেত্রে শুধু অনলাইনে কাটা টিকিটের জন্যেই নয়, অফলাইন অনলাইন দুই ক্ষেত্রেই যাত্রীরা তাদের সম্পূর্ণ টাকা ফেরত পাবেন।

তাছাড়াও এক্ষেত্রে যে সকল যাত্রীরা পিআরএস কাউন্টার থেকে টিকিট কেটেছেন অর্থাৎ অফলাইনে টিকিট করেছেন তাদের তারা তাদের মোবাইল থেকে 139 নাম্বারে কল করে অথবা IRCTC এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে যাত্রার দিন থেকে ছয় মাসের মধ্যে টিকিট বাতিল করার আবেদন করতে পারবেন। আর এই ক্ষেত্রেও টিকিটের সম্পূর্ণ টাকা ফেরত দিয়ে দেওয়া হবে। তাছাড়া আরও একটি কথা এক্ষেত্রে যারা তাদের টিকিট বাতিল করে নিয়েছেন তবে যাদের এক্ষেত্রে এক্সট্রা কোনো টিকেট ক্যান্সলেশন চার্জ কাটা হয়েছে তারাও সে ক্ষেত্রে চার্জ ফেরত করার জন্য আবেদন করতে পারবেন।