কীভাবে ৪৫ টাকা পেট্রোলের দাম আজ ১০০ টাকা, কতটা পরিমাণে ট্যাক্স নিচ্ছে রাজ্য ও কেন্দ্র, বিস্তারিত জানতে

বর্তমান সময়ে আমরা দেখতে পাচ্ছি হু হু করে বাড়ছে পেট্রোল-ডিজেলের দাম। পেট্রোলের দাম যেখানে হওয়ার কথা ৪৪.৬৮ টাকা। সেখানে আমরা গত বুধবার কলকাতায় কিনছি ১০০ টাকা ২৩ পয়সা দিয়ে! কিন্তু কেন এমন দাম? ৪৫ টাকার পেট্রোল ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে কেন? তেলের এই মূল্যবৃদ্ধির পিছনে, যেমন আছে কেন্দ্র সরকার তেমনই রয়েছে রাজ্য সরকার।

তেলের দাম আকাশছোঁয়া করে মানুষকে অসহায় অবস্থার ফেলার পিছনে যেমন রয়েছে মোদী সরকারের হাত ঠিক তেমনি রয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার। গত বুধবার কলকাতায় পেট্রোল পাওয়া যাচ্ছিল; লিটার প্রতি ১০০.২৩ টাকায়। পেট্রোলের একচুয়াল দাম ৪৪.৬৮ টাকা। ৪৫ টাকার থেকেও কম টাকার পেট্রোল ১০০ টাকার মূল্যে বিক্রি হওয়ার পিছনে রয়েছে কেন্দ্র সরকার এবং রাজ্য সরকারের ট্যাক্স।

৪৪.৬৮ টাকা পেট্রোলের দামের উপর কেন্দ্রীয় ট্যাক্স (এক্সাইজ ডিউটি) ৩২.৯০ টাকা ও রাজ্যের সেলস ট্যাক্স ১৯.৩৫ টাকা। এই দুয়ের ট্যাক্স মিলে পেট্রোলের দাম গিয়ে দাঁড়াচ্ছে ১০০ টাকার উপর। পেট্রোলের এই মূল্যবৃদ্ধির দিকে খেয়াল নেই কেন্দ্র রাজ্যের।

তারা নিজের মতো করে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে কর আদায় করে। দীর্ঘদিন ধরেই গোটা দেশের বিভিন্ন জিনিসের উপর জিএসটি বসানো হচ্ছে। এজন্য পেট্রোলের উপর নানা কর চাপানো হবে। সেই দাবিতে সহমত হয়নি কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার। কারণ পেট্রোল যদি জিএসটির আওতায় আসে তাহলে কেন্দ্র রাজ্য দুয়েরই পেট্রোল থেকে আয় কমে যাবে।