Trending

কতটা গ্যাস আছে সিলিন্ডারে এখন ওজন করা ছাড়াই বলা সম্ভব! কিন্তু কিভাবে জানেন ?

বর্তমানে প্রায় প্রত্যেক ঘরে রান্নার জন্য গ্যাস ব্যবহৃত করা হয়। আগেকার মতো কাঠের কয়লা তে রান্না করার ঝামেলা হয় না এখন। গ্যাসে রান্না করলে রান্না খুব তাড়াতাড়িই হয়ে যায়। তাই অনেকেই গ্যাসে রান্না করা পছন্দও করেন। এখন তো আবার প্রত্যেক গ্রামে গঞ্জে গ্যাসের সুবিধা রয়েছে। তবে গ্যাসে রান্না করার একটা সমস্যা হয় যে বোঝা যায় না আর কতটা গ্যাস আছে বা আর কতদিন চলবে। এবার ধরুন আপনার ঘরে কোন অনুষ্ঠান হচ্ছে সেই সময়ে আপনার গ্যাস শেষ হয়ে গেল। তাহলে আপনি চরম মুশকিলের মধ্যে পড়ে যাবেন সেই সময়। প্রায় প্রত্যেক বাড়িতেই অনুমানের উপর গ্যাসে রান্না করা হয় বা অনুমান করে বলা হয় যে আর কত দিন যাবে।

আবার গ্যাস শেষ হয়ে গেল সঙ্গে সঙ্গে গ্যাস পাওয়া যায় না, তার জন্য অপেক্ষা করতে হয়। আবার যাদের বাড়িতে দুটো করে সিলিন্ডার আছে তাদের এই সমস্যায় পড়তে হয় না। কিন্তু যাদের একটা সিলিন্ডার আছে তাদের জন্য একটি সমাধান নিয়ে এসেছে মধ্যপ্রদেশের সায়েন্স কলেজের অধ্যাপক বিজেন্দ্র রায়।এই সমাধানটি হল,কতটা গ্যাস আছে তা বোঝার জন্য প্রথমে ভিজে কাপড়ে সিলিন্ডার টাকে ভালো করে মুছতে হবে। এমন ভাবে মুছতে হবে যাতে সিলিন্ডার উপর জমে থাকা ধুলো উঠে যায়।মোছা শেষ হয়ে গেলে দেখা যাবে সিলিন্ডারটি আস্তে আস্তে শুকোতে লাগছে।

দু তিন মিনিট পর দেখা যাবে সিলিন্ডারে কিছুটা অংশ শুকিয়েছে আর কিছুটা অংশ তখনও ভিজে রয়েছে। যে অংশটা ভিজে রয়েছে বুঝে নিতে হবে সেই অংশটিতে গ্যাস রয়েছে।অধ্যাপক বিজেন্দ্র রায় জানিয়েছেন যে অংশে তরল থাকে সেখানে খালি অংশের তুলনায় তাপমাত্রা কিছুটা কম থাকে। এলপিজির যে অংশটি তরল থাকবে সেই অংশেটি শুকাতে বেশি সময় নেবে। তাহলে এইভাবে আমরা বুঝতে পারবো যে সিলিন্ডারে কতটা গ্যাস রয়েছে এবং সে থেকে অনুমান করতে পারবো যে গ্যাসটি আর কত দিন যাবে।পোস্টটি যদি একটুকু আপনার হেল্প করে থাকে তাহলে পোস্টটি শেয়ার করে জানিয়ে দিন সকলকেই।

Related Articles

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Close