রাজ্যের ৫ টি জেলাতে বজ্রপাতের সাথে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস: আজকের আবহাওয়া খবর

বছরের ভাদ্র মাস পেরিয়ে আশ্বিন মাসেও দেখা পাওয়া গেলো না শরতের দিনের মিষ্টি রোদেলা সকাল বেলার। যেন বর্ষাকালের মতো বৃষ্টির রেখা পড়েই যাচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের এর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর এর দিকে তৈরি হওয়া ঘূর্ণিঝড়, মায়ানমার এর সাথে যুক্ত এলাকা বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। যেই জন্য এই ভারি বৃষ্টি ও বজ্রপাত এর আলো দেখছে বাংলাবাসী।

আগের দিন রাতভোর থেকে বৃষ্টিতে জলমগ্ন বাংলার অনেক এলাকায় ও সাথে সঙ্গ দিচ্ছে ভারী বজ্রপাত। আজ সোমবার মানে সপ্তাহের প্রথম দিন, কাজে যাওয়ার জন্য পথে হাঁটু ছোঁয়া জল পেরোতে হচ্ছে কলকাতা এর বাসিন্দা দের। জোড়া ঘূর্ণবৃষ্টি ও সক্রিয় মৌসুমী এলাকা, সবদিক থেকে বৃষ্টি ও মেঘের ছায়া ঘিরে রেখে বাংলা কে, বৃষ্টি বন্ধ হওয়ার কোন নামই যেন নিচ্ছে না আকাশ। কিন্তু মঙ্গলবার মানে ২০ সেপ্টেম্বর, থেকে আবহাওয়া কিছুটা ঠিক হতে পারে বলে জানা গিয়েছে, বন্ধ হতে পারে কাল থেকে বৃষ্টিপাত।

তাপমাত্রা:–

সর্বোচ্চ তাপমাত্রা :-৩০ ° C

সর্বনিম্ন তাপমাত্রা:- ২৭° C

আদ্রতা :-৯৬%

বাতাস:- ১৩ km/h

মেঘে ঢাকা :-৯৭%

আজকের সারাদিন আবহাওয়া আপডেট:—

আজকের দিন এ কলকাতা শহরের সব থেকে বেশি তাপমাত্রা হবে ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস এর কাছাকাছি ও সব থেকে কম তাপমাত্রা থাকবে ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস এর মতো। আজকে সকাল এর দিকে অনেকবার বজ্রপাত ও ভারী বৃষ্টিপাত ও আজকে রাত এর দিকে এলাকার অনেকগুলি জায়গায় একবার করে বজ্রবিদ্যুৎ সহ প্রবল ঝড়ের সম্ভাবনা আছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।

জেনে নিন উত্তরবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গের আবহাওয়া সম্পর্কে:–

কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, উত্তর ২৪ পরগনায় ও দক্ষিণ ২৪ পরগণায় হতে পারে বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারি বৃষ্টির সম্ভাবনা। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ দিকে অনেক এলাকায় আজ সারাদিন চলতে থাকবে এই ভারী বৃষ্টির প্রলয়। হাঁটু অবধি জল জমে গিয়েছে উত্তর ও মধ্য কলকাতার অনেক এলাকায়। ফের জল জমায় মাথায় হাত কলকাতাবাসীদের।

কালকের আবহাওয়ার ভবিষ্যদ্বাণী:—

কাল কলকাতা শহর এর সব থেকে বেশি তাপমাত্রা হতে পারে ৩১ ডিগ্রি সেলসিয়াস এর কাছাকাছি ও সব থেকে কম তাপমাত্রা থাকবে ২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস মতো বলে আশা করা হচ্ছে। সকাল এর দিকে অনেকবার বজ্রপাত ও ভারী বৃষ্টি হতে পারে, ও রাতের দিকে এলাকার কিছু জায়গাতে বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝড় আসার সম্ভাবনা রয়েছে বলে ভাবছেন আবহাওয়া দপ্তর।