ঘূর্ণবাতের ফলে দক্ষিণবঙ্গের তিনটি জেলাতে প্রবল বর্ষণের সম্ভাবনা, উত্তরবঙ্গে রয়েছে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস

আলিপুর আবহাওয়া দফতর ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছে আজ সকাল থেকে বজ্রবিদ্যুৎ সহ অতিভারী বৃষ্টি হতে চলেছে উত্তরবঙ্গে। আকাশের মুখ সকাল থেকেই ভারী। বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে লাগাতার বৃষ্টি চলছে উত্তরবঙ্গ থেকে দক্ষিণবঙ্গ সর্বত্র। তবুও গরমে নাজেহাল মানুষ। শুক্রবার সকাল থেকেই কলকাতা সহ পাশাপাশি শহর গুলোয় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। এই মুহুর্তে রাজ্যের তিন জেলায় রয়েছে ব্যাপক বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা।

শুক্রবার সকাল থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে, বীরভূম, উত্তর ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা, ও মেদিনীপুরে। লাগাতার বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা থাকছে। এই মুহুর্তে মৌসুমি অক্ষরেখা নিজের স্থান পাল্টে জামশেদপুর ও দিঘা হয়ে বঙ্গোপসাগরে বিস্তৃত হয়েছে। কলকাতার আকাশ মেঘলা, হালকা বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা থাকছে। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ বেশি থাকায় বেশ গরম রয়েছে।আবহাওয়া খবর

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, লাগাতার ২৪ ঘন্টা ধরে বৃষ্টিপাত চলবে। সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে উত্তরবঙ্গে। এছাড়াও দক্ষিণবঙ্গে আংশিক ভাবে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। দক্ষিণবঙ্গের দক্ষিণ ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুরে লাগাতার ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। আগামী দুদিন বৃষ্টিপাত কমার কোন লক্ষন নেই বলেই জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

দুদিন ধরে লাগাতার বৃষ্টি চলবে দক্ষিণবঙ্গে। শুক্রবার সকাল থেকে উত্তরবঙ্গ জুড়ে লাগাতার বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহারে চলবে লাগাতার বৃষ্টিপাত। আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী, ২১ তারিখ সাময়িক বৃষ্টিপাত কমে গেলেও ২২ তারিখ থেকে বৃষ্টিপাত আরও বেশি হবে বলেই জানিয়েছে। আবহাওয়া সূত্রের খবর অনুযায়ী, ঝাড়খণ্ডের উপর সৃষ্টি হয়েছে একটি ঘূর্ণাবর্ত, যার জেরে বৃষ্টি কমে গেলেও থেকে যাবে গরম। শুক্রবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস।