আগামী 24 ঘন্টার মধ্যে রাজ্যের সাতটি জেলায় ধেয়ে আসছে প্রবল ঝড়-বৃষ্টি, বড়োসড়ো আপডেট আবহাওয়া দপ্তরের

বসন্তকাল পড়ার সাথে সাথেই রোদ্দুরের তেজ বাড়তে চলেছে। চৈত্র মাসে গরমে হাঁসফাঁস হওয়ার অবস্থা। এখন শুরু হয়েছে বাঙ্গালীদের নতুন বছর। আর এই নতুন বছরের শুরুতেই আবহাওয়াবিদরা গরম থেকে স্বস্তি পাওয়ার খবর দিলেন। এই সপ্তাহের শেষ অথবা আগামী সপ্তাহের মধ্যে রাজ্যের বেশ ক’টি জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

গরমের জেরে রাজ্যবাসীদের হাঁসফাঁস হওয়ার মত অবস্থা। কলকাতাবাসীদেরও গরমে স্বস্তি নেই। এই গরম থেকে বাঁচানোর জন্য আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত উত্তরবঙ্গের একাধিক জেলা যেমন-দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, দুই দিনাজপুর, মালদায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তবে কলকাতাবাসীদের গরম থেকে নিস্তার দেওয়ার জন্য বৃষ্টির কোনো সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

তবে এর পাশাপাশি ঝোড়ো হওয়া এবং সাথে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে রাজ্যের বেশকিছু জেলার জন্য। আলিপুর আবহাওয়া অফিস বলেছে, পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, বীরভূম, পশ্চিম বর্ধমান, মুর্শিদাবাদে বৃষ্টির সাথে ঘণ্টায় ৩০-৪০ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

গতকাল অর্থাৎ বুধবার পুরোদিন কলকাতার তাপমাত্রা ছিল ৩৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড। যা স্বাভাবিক তাপমাত্রা থেকে অনেকটাই বেশি। ১২১ বছরের গরমের রেকর্ডের ভিত্তিতে এই বছরের মার্চ মাসে গরমের আবহাওয়া তৃতীয় স্থান দখল করে নিয়েছে। রাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলায় গরমের হাত থেকে কিছুটা মুক্তি পাওয়া গেলেও কলকাতায় কিন্তু গরম কমবে না বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন আবহাওয়া দপ্তর।