আবারও তৈরি হচ্ছে নিম্নচাপ, সাগরে পড়ার আগেই ১০ টি জেলায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস! আবহাওয়া দপ্তরের তরফে জারি সতর্কবার্তা

আগামী ২১ শে জুলাই থেকে ফের আবহাওয়ার পরিবর্তন হতে চলেছে। বঙ্গোপসাগরে রয়েছে গভীর নিম্নচাপের পূর্বাভাস। মঙ্গলবার সকাল থেকেই আকাশের মুখ ভার। ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে বাংলায় বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি। আবহাওয়া দফতরের সূত্রে খবর, গত ২১ শে জুলাই থেকে আবহাওয়ার বড়সড় পরিবর্তন লক্ষ করা যাবে।

ওড়িশা উপকূল, দক্ষিণ ও উত্তরে রয়েছে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা। ওড়িশা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে তৈরি হয়েছে নিম্নচাপ। দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জায়গায় ও কলকাতা সহ আশেপাশের এলাকা গুলিতে রয়েছে বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা।

আজকের আবহাওয়া:-

আজ কলকাতায় তাপমাত্রা থাকবে ৩১ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে, তবে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৮ ডিগ্রি। সকাল থেকে এবং সারা রাত ধরে চলতে পারে বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টিপাত। সকালের দিকে এলাকার কয়েকটি জায়গায় একবার বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝড় এবং রাতের দিকে কিছুটা পরিষ্কার আকাশ থাকার সম্ভাবনা সম্ভাবনা রয়েছে। দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জায়গায় ও বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে, পূর্ব বর্ধমান, বীরভূম, পশ্চিম বর্ধমান, মেদিনীপুর জেলা সহ আরো বেশ কিছু জায়গায়।

উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের আবহাওয়া:-

আজ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন এলাকায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে তবে একুশে জুলাই নিম্নচাপ তৈরি হওয়ার কারণে বুধবার থেকেই আবহাওয়ার পরিবর্তন লক্ষ্য পড়বে। ওড়িশা উপকূল এবং বাংলার উত্তর ও দক্ষিণে বেশকিছু জেলায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

আবহাওয়া

সম্ভাব্য নিম্নচাপের দিন পরিবর্তন:–

যদিও এর আগেই আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছিল আগামী ২১ জুলাই নাগাদ উত্তর পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ তৈরি হতে পারে। তবে সর্বশেষ বার্তায় বলে হয়েছে ২৩ জুলাই নাগাদ তা তৈরি হতে পারে। যার জেরে ২২ জুলাই নাগাদ ওড়িশা এবং মধ্যভারতের বিস্তীর্ণ এলাকায় আবহাওয়ার পরিবর্তন হতে পারে।

আগামীকালের আবহাওয়া :-

আগামীকাল কলকাতা সহ পার্শ্ববর্তী এলাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস এর পাশাপাশি এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশে পাশে থাকবে বলে অভিমত হাওয়া অফিসের। সকালের দিকে কলকাতার কয়েকটি জায়গায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ঝড় ও রাতের দিকে কিছুটা পরিষ্কার আকাশ থাকার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।