পুরনো গাড়ি ব্যবহারকারীদের জন্য দুঃসংবাদ, কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহন মন্ত্রী চালু করছেন নতুন নিয়ম! এবার থেকে

কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহনমন্ত্রী নীতিন গড়করি জানিয়েছেন, পুরনো গাড়ির ওপর গ্রীন ট্যাক্স  বসানোর জন্য।  এই প্রস্তাব রাজ্যগুলির কাছে পাঠানো হবে।  এবং তারপর রাজ্যগুলি তরফের মতামত জানতে চাওয়া হবে।

রাজ্যগুলি তরফ থেকে মতামত জানার পর এই বিষয়ে নতুন করে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হবে।  প্রস্তাব অনুসারে গ্রীন ট্যাক্স  বসানো হবে। পরিবহনের সেই সমস্ত যানগুলির উপর যাদের 8 বছরের বেশি বয়স।

ফিটনেস সার্টিফিকেট পুনর্নবীকরণ করার সময় 10 থেকে 25 শতাংশ রোড ট্যাক্স বসানো হবে।  ব্যক্তিগত গাড়ি যদি 15 বছরের পুরনো হয় তাহলে একই হারে কর চাপানো হবে।  রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট নবীকরণ এর সময় গণপরিবহন ইত্যাদির ক্ষেত্রে কম হবে গ্রীন ট্যাক্সের পরিমাণ।

কৃষকদের লালকেল্লা দখলের ছবি নিয়ে এবার “দিলজিৎ-প্রিয়াঙ্কা”-কে নিশানা কঙ্গনার

অত্যন্ত দূষণযুক্ত গাড়ি হলে সে ক্ষেত্রে গ্রীন ট্যাক্সের পরিমাণ বেশি হলে দিতে হবে।50% পর্যন্ত রোড ট্যাক্স দিতে হতে পারে।  কোন ধরনের গাড়ি এবং কোন জ্বালানি তেলে হবে  তার ওপর নির্ভর করবে এই টাকার পরিমাণ।

সরকারের এই পদক্ষেপের ফলে সাধারণ মানুষ সেই সব গাড়ি আর ব্যবহার করবে না, যা পরিবেশ দূষণ করে।  এবং থেকে যে টাকা আদায় হবে তা দিয়ে দূষণ মোকাবিলার জন্য রাজ্যগুলি নজরদারি চালাতে পারবে।

2022 সালের 1 এপ্রিল থেকে এ প্রস্তাব কার্যকর করা হবে বলে জানা যাচ্ছে।  ইলেকট্রিক গাড়ি এবং বিকল্প জ্বালানি ব্যবহার করা যেমন কম্প্রেশন, লিকুইফাইড পেট্রোলিয়াম এর ক্ষেত্রে গ্রীন ট্যাক্সের ছাড়  থাকবে।  এছাড়া কৃষি ক্ষেত্রে ব্যবহৃত যেমন ট্রাক্টর হারভেস্টার এর ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হবে করে৷