বেসরকারি সংস্থার কর্মীদের জন্য বড়োসড়ো সুখবর!আগামী পয়লা অক্টোবর থেকে বাড়তে চলেছে বেসিক স্যালারি

করোনা মহামারীর মধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই চালু করা হয়েছে নতুন লেবার কোড। গত মাসের ১ জুলাই থেকে চালু হওয়ার কথা থাকলেও রাজ্যগুলি ঠিকঠাক প্রস্তুতি না থাকার কারণে চালু করা সম্ভব হয়নি তবে অবশেষে চালু হতে চলেছে লেবার কোড আগামী ১ অক্টোবর থেকে এই লেবার কোড চালু হলে এক ধাক্কায় অনেকটাই বাড়তে পারে বেসরকারি সংস্থার কর্মীদের বেসিক মাইনে।

লেবার ইউনিয়ন এর পক্ষ থেকে অবশ্য এই নতুন লেবার কোড নিয়ে একাধিক দাবি করা হয়েছে যেখানে কর্মীদের বেসিক স্যালারি ১৫ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ২১ হাজার টাকা করার অনুরোধ জানানো হয়েছে। ইউনিয়নের দাবি মেনে নিলে বেসরকারি সংস্থার কর্মীদের বেসিক স্যালারি অনেকটাই বেড়ে যাবে। নতুন আইন অনুসারে বেসিক সেলারি মোট বেতনের ৫০ শতাংশ হওয়া প্রয়োজন।

নতুন আইন এর পরিপ্রেক্ষিতে এবার লেবার কোড অনুযায়ী সালারি স্ট্রাকচার বদলাতে চলেছে। তবে বেসরকারি কর্মচারীদের বেসিক সেলারি বাড়লেও তাদের পিএফ এবং গেচিউরিটি জন্য বেশ খানিকটা টাকা কাটা যাবে। সে ক্ষেত্রে রিটায়ার করার সময় দেখুন স্যালারির পরিমাণ অনেকটাই কমে যাবে। তবে অবসরের সময় পিএফ এবং গ্যাচিউরিটির যে অর্থ পাওয়া যেতো বর্তমানে লেবার কোড চালু হবার পর টাকার অঙ্ক অনেক গুন বেড়ে যাবে।

কেন্দ্রীয় শ্রমমন্ত্রীকে তরফ থেকে ইতিমধ্যেই জানানো হয়েছে ১ জুলাই থেকে লেবার কোড চালু করার জন্য সম্পূর্ণ ভাবে তৈরি ছিল কেন্দ্র। কিন্তু করণা মহামারীর জন্য সমস্ত রাজ্য সরকার গুলি কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে সময় চায়। তারই পরিপ্রেক্ষিতে ১ অক্টোবর থেকে এই লেবার কোড চালু হতে চলেছে। সবমিলিয়ে বলা যেতেই পারে নতুন এই লেবার কোড চালু হলে, শ্রম আইনে যুগান্তকারী পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাবে। বেতন পরিকাঠামো ছাড়াও, সপ্তাহে কাজের দিনের পরিবর্তন লক্ষ্য করা যেতে পারে বলে জানা গেছে।