সকল বাইক চালকদের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে লাগু করা হল নতুন নিয়ম এবার থেকে হেলমেট ছাড়া বাইক চালালে বাজেয়াপ্ত করা হবে ড্রাইভিং লাইসেন্স..

বর্তমান দিনে পথদুর্ঘটনায় প্রায় অধিকাংশ মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। তাই লোকসভা সংশোধনী বিলে এ বিষয়ে বিশেষভাবে জোর দিয়েছেন সড়ক মন্ত্রকের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী নীতিন গড়করি। সুগমযাত্রা সুনিশ্চিত করতে এই বিল পাস করা হয়েছে বলে সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে। এই বিলে ট্রাফিক নিয়ম ভঙ্গ করলে প্রচুর টাকা জরিমানা কথা বলা হয়েছে। এই নতুন বিলে পথ সুরক্ষা নিশ্চিত করতে নাবালকদের গাড়ি চালানো, ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালানো, বিপদজনক ভাবে গাড়ি চালানো, মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালানো, নির্দিষ্ট সীমার থেকে বেশি বেগে গাড়ি চালানো।

অতিরিক্ত পণ্য বহন করার ক্ষেত্রে শাস্তির প্রস্তাব করা হয়েছে এই নতুন বিলে। এছাড়াও এই বিলে আরো কতগুলি নিয়ম রয়েছে যেগুলি হল, ফোনে কথা বলতে বলতে গাড়ি চালালে 5 হাজার টাকা জরিমানা। কোন চালক যদি হেলমেট না পরে গাড়ি চালায় তাহলে 1000 টাকা পর্যন্ত জরিমানা এবং তিন মাস পরিচালকের লাইসেন্স বাজেয়াপ্ত করা হবে। এম্বুলেন্স বা দমকলের মত আপৎকালীন গাড়িকে রাস্তা না ছাড়লে 10 হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানার কথা বলা হয়েছে এই বিলে।

এবং লাইসেন্স না থাকা সত্ত্বেও যদি কোন ব্যক্তি গাড়ি চালায় তাহলে একই পরিমাণ জরিমানা ধার্য করা হবে।
কোন অ্যাপ ক্যাব এর চালক যদি পথ আইন ভাঙ্গে তাহলে এক লক্ষ টাকা পর্যন্ত জরিমানা হবে। সারা দেশের মোট 18 টি রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রীদের সুপারিশ মেনেই বিল পাস করা হয়েছে এবং এতে সংসদের স্থায়ী কমিটি সবুজ সংকেত দিয়েছে। এছাড়া ট্রাফিক ভঙ্গ করলে 500 টাকা জরিমানার কথা বলা হয়েছে এই বিলে। এর আগে 500 টাকার পরিবর্তে 100 টাকা জরিমানা ছিল। ট্রাফিক পুলিশের নির্দেশ যদি কেউ অমান্য করে তাহলে 500 টাকার পরিবর্তে এখন ন্যূনতম 2000 টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

রাজ্য সভায় অনুমোদন পাওয়ার জন্য এই বিলটি দীর্ঘদিন ধরে পড়েছিল। এবং ষষ্ঠদশ লোকসভার মেয়াদ শেষ হয়ে যাবার পর এই প্রস্তাব বাতিল হয়ে যায়। এক আধিকারিক জানান, ‘ প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীনে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় মোটর ভিকেলস বিল অনুমোদন করেছে। বিভিন্ন ট্রাফিক নিয়ম ভাঙলে বিপুল পরিমাণে জরিমানার কথা উল্লেখ করা হয়েছে এতে।’ ওই আধিকারিক কে এই প্রসঙ্গে বলেন যে,’ কোন নাবালক যদি গাড়ি চালায় তাহলে তাঁর অভিভাবক এবং গাড়ির মালিককে কে দোষী সাব্যস্ত করা হবে। সেক্ষেত্রে 50 হাজার টাকা জরিমানা এবং তিন বছরের হাজতবাস হতে পারে।

এছাড়াও ওই সংশ্লিষ্ট গাড়িটি রেজিস্ট্রেশন বাতিল করা হবে। ‘ এই বিল পুরোপুরিভাবে সারা দেশে চালু হয়ে গেলে পথদুর্ঘটনার সংখ্যা অনেক কমে যাবে বলে অনুমান করা হচ্ছে। ফলে সাধারণ মানুষের প্রাণ রক্ষা হবে।

The India Desk

Indian famous bengali portal, covers the breaking news, trending news, and many more. Email: theindianews.org@gmail.com

Related Articles

Close