করোনাকালে বড়োসড়ো সুখবর মোদি সরকারের, উপকৃত হতে চলেছে দেশের প্রায় সাড়ে ছয় কোটি মানুষ

ইপিএফ গ্রাহকদের জন্য কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে একটি সুখবর প্রদান করা হয়েছে। সরকার তার গ্রাহকদের জন্য ২০২০ অর্থবর্ষে যে ৮.৫% সরকারি সুদ দেওয়ার বার্তা দিয়েছিল। গত ৩১ ডিসেম্বর থেকে গ্রাহকদের সেই সুবিধা দেওয়ার জন্য কেন্দ্র সরকার আমরণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। ইতিমধ্যেই সেই কাজ শুরু করা হয়েছে। এই ধরনের সুদের হার দেওয়ার ফলে সুবিধা পাবেন প্রায় ৬.৫ কোটি কর্মী এমনই ফলাফলের কথা মনে করছে কেন্দ্র সরকার।

কোভিদ পরিস্থিতি কেন্দ্র সরকারের আর্থিক সংকট থাকলেও তার মধ্যে ইপিএফ গ্ৰাহকদের জন্য নতুন খবর দিচ্ছে কেন্দ্র সরকার। এই প্রসঙ্গে শ্রমমন্ত্রীর সন্তোষ গাঙ্গোয়ার জানিয়েছেন, “আমরা বলেছিলাম যে ২০১৯-২০ অর্থবর্ষের জন্য ইপিএফওতে ৮.৫ শতাংশ সুদের হার দেওয়ার চেষ্টা করব আমরা। এই মর্মে ইতিমধ্যেই বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টে সরকারি সুদ পৌঁছে দেবার কাজও শুরু হয়ে গিয়েছে।”

৩১ আগস্ট পর্যন্ত কোভিড বিধি নিষেধ বাড়ালো কেন্দ্র, করোনার তৃতীয় ঢেউ-এর আগে সতর্ক থাকার নির্দেশ সমস্ত রাজ্যগুলিকে

এছাড়াও প্রফিডেন্ট ফান্ড অ্যাকাউন্ট গ্রাহকেরা এখন বাড়িতে বসেই প্রফিডেন্ট ফান্ডের ব্যালেন্স চেক করতে পারবেন। প্রফিডেন্ট ফান্ডের ব্যালেন্স চেক করার জন্য একটি টোল ফ্রি নম্বর ০১১-২২৯০১৪০৬ ফোন করে ব্যালেন্স জানা যেতে পারে। এই নম্বরে ইপিএফও অ্যাকাউন্টের সঙ্গে রেজিস্টার্ড মোবাইল নাম্বার থেকে কল করলে কিছুক্ষণের মধ্যেই কলটি ডিসকানেক্ট হয়ে যাবে। এরপর সেই নাম্বারে অ্যাকাউন্ট ব্যালেন্স সম্পর্কিত তথ্য এসএমএসের মাধ্যমে চলে আসবে।

আবার এসএমএস-এর মাধ্যমে প্রফিডেন্ট ফান্ডের অ্যাকাউন্ট ব্যালেন্স জানা যেতে পারে। এর জন্য ৭৭৩৮২৯৯৮৯৯ নম্বরে EPFOHO UAN ENG লিখে এসএমএস পাঠাতে হবে। এরপর গ্রাহকের কাছে অ্যাকাউন্ট ব্যালেন্স সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য এসএমএসের মধ্যে চলে আসবে। এর পাশাপাশি গ্রাহকরা ইপিএফ পাসবুক পোর্টাল থেকেও তার জমা করা ব্যালেন্স সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য নিতে পারবেন।