করোনা আবহে বেসরকারি কর্মচারীদের জন্য সুখবর! বেতন বাড়তে পারে ৯.৪ শতাংশ পর্যন্ত , বিস্তারিত জানতে

করোনা মহামারীর ফলে বিপর্যস্ত দেশ অর্থনীতির করুণ দশা সকলের চোখে চোখে। আর্থিক অনটনের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে গোটা বিশ্ব। প্রায় সমস্ত দেশের অর্থনীতির ওপর একটা বিশাল প্রভাব পড়েছে এই মহামারী। এর মধ্যেই গত ১.৫ বছরে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন কোটি কোটি মানুষ। যেসব কর্মক্ষেত্রে সর্বোচ্চ প্রভাব পড়েছে তাদের মধ্যে অন্যতম হল প্রাইভেট সেক্টর। আবার অনেক ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে চাকরি থাকলেও, বেতন অর্ধেক করে দেওয়া হয়েছে।

এমতাবস্থায়, বেসরকারি সংস্থার কর্মীদের জন্য সুখবর রয়েছে। একটি সূত্র মারফত জানা গিয়েছে , বেসরকারি সংস্থাগুলি তাদের কর্মচারীদের ৯.৪ শতাংশ হারে বেতন বাড়াতে পারে। এটা এই মহামারীর সময়ে বেসরকারি কর্মীদের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও খুশির খবর। আর তার থেকেও বড়ো কথা হল, এটি গত ৪ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বেতন বৃদ্ধির হার হতে চলেছে। এর মূল কারণ হল দেশের আর্থিক অবস্থা উন্নতি হওয়া এবং অ্যাট্রিশন রেট (Attrition Rate) ২০ শতাংশ পর্যন্ত হওয়া।

আরও অনুমান করা হয়েছে যে, AON এর বার্ষিক স্যালারি সার্ভেতে আগামী বছরে ৯.৪ শতাংশ হারে বেতন বৃদ্ধি করা হতে পারে। এখনও পর্যন্ত এর আগে ২০১৮ সালে বেসরকারি সংস্থাগুলি ৯.৫ শতাংশ হারে কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধি করেছিল। তবে অনুমান করা হয়েছিল সর্বাধিক বেতন ৭.৭ শতাংশ হারে বাড়তে পারে। কিন্তু তার থেকে অনেক বেশি হারে অর্থাৎ ৮.৮ শতাংশ হারে বেতন বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বার্ষিক স্যালারি সার্ভেতে ৩৯ টি ইন্ডাস্ট্রিজের সাথে যুক্ত আনুমানিক ১৩০০ টি সংস্থা থেকে নেওয়া তথ্য নিয়ে তা বিশ্লেষণ করা হয়েছে এবং বলা হয়েছে যে আগামী বছরে আইটি সেক্টরে ১১.২ শতাংশ হারে বেতন বৃদ্ধি হতে পারে। এছাড়াও প্রোফেশনাল সার্ভিসেস এবং ই-কমার্স সেক্টরেও ১০.৬ শতাংশ হারে বেতন বাড়তে পারে। অন্যদিকে রিয়েল এস্টেট সেক্টরের কর্মীদেরও ৮.৮ শতাংশ হারে বেতন বৃদ্ধি হওয়ার সম্ভাবনা আছে। এই চলতি বছরে রিয়েল এস্টেট সেক্টরে ৬.২ শতাংশ হারে বেতন বৃদ্ধি করা হয়েছে।